রাজশাহীতে ৩ লাখ ৫৬ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০২৩, ১:৫৬ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক :


রাজশাহী জেলা ও মহানগরে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৩৬৪ শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল। এর মধ্যে জেলার ৯টি উপজেলায় খাওয়ানো হবে ২ লাখ ৯১ হাজার ১৫৯ শিশুকে। আর মহানগরীতে খাওয়ানো হবে ৬৫ হাজার ২০৫ জন শিশুকে।
বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানিয়ে জেলা সিভিল সার্জন ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ। আগামী ১২ ডিসেম্বর ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

সিভিল সার্জন ডা. আবু সাঈদ মোহাম্মদ ফারুক জানান, অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব দূর করতে এবং শিশু মৃত্যু প্রতিরোধে জেলা পর্যায়ে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। রাজশাহী জেলার মোট ১ হাজার ৭৫৪টি কেন্দ্রে ২ লাখ ৯১ হাজার ১৫৯টি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এর মধ্যে ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ২৯ হাজার ৬২৯ জন শিশুকে নীলরঙের ক্যাপসুল (এক লাখ আইইউ) এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ২ লাখ ৬১ হাজার ৫৩০ জন শিশুকে লালরঙের ক্যাপসুল (দুই লাখ আইইউ) খাওয়ানো হবে।

সিভিল সার্জন বলেন, ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল শিশুর বিকাশে সাহায্য করে। শিশুর অন্ধত্ব প্রতিরোধ করে এবং শিশু মৃত্যুর হারকে কমিয়ে আনে। তাই মায়েদের সচেতন হতে হবে যেন কোনো শিশু ক্যাপসুল খাওয়া থেকে বাদ না পড়ে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম বলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ব্যবস্থাপনায় মহানগরীতে ছয় মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৫৬ হাজার ২৯৫ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৮ হাজার ৯১০ শিশুকে নীলরঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

তিনি বলেন, রাজশাহী মহানগরীতে ৩৮৪টি কেন্দ্রে ৭৬৮জন স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্রে দুইজন করে স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্র সকাল ৮টা থেকে ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। ৬-১১ মাস বয়সী ৮ হাজার ৭৭৯ জন ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৫৬ হাজার ১০৫ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।।

সংবাদ সম্মেলনে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের ওপর গুরুত্বরোপ করে বলা হয়, দেশ থেকে অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব নির্মূল এবং অপুষ্টিজনিত শিশু মৃত্যু প্রতিরোধ করতেই দেশব্যাপি জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন পরিচালিত হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ