রাজশাহীর উন্নয়নে নারীদের সহযোগিতার আহ্বান রেনী ও ডাবলুর

আপডেট: জুলাই ৯, ২০১৭, ১:৪১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


উঠান বৈঠকে বক্তব্য দেন নগর আ’লীগের সহসভাপতি শাহীন আকতার রেনী। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারসহ নেতৃবৃন্দ সোনার দেশ

কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক কমসূচির অংশ হিসেবে নগরীর ১৯ নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগ ও এলাকার নারীদের নিয়ে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। মহানগর আ’লীগের সহসভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী ও সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের নেতৃত্বে এ উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শনিবার বিকেল ৫টায় নগরীর শিরোইল কলোনী ৪ নম্বর গলিস্থ নগর আ’লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার মুক্তির বাড়িতে এলাকার নারীদের নিয়ে এই উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
উঠান বৈঠকে মহানগর আ’লীগ সভ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য নারীদের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নারীবান্ধব। নারীদের সমাজে প্রতিষ্ঠা করার জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমুখী পরিকল্পনা করেছেন। পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নারীদের সম্মান বাড়িয়ে দিয়েছেন। রাজশাহীতে আ’লীগের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য নারীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।
রাজশাহীর উন্নয়নের ধারা বর্ণনা করতে গিয়ে রেনী বলেন, এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন কয়েক বছরে রাজশাহীর রুপরেখার পরিবর্তন করে দিয়েছেন। যার ফলে রাজশাহী উন্নত নগরীতে পরিণত হয়েছে। খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীকে উন্নত করার জন্য নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এখন পর্যন্ত। আসন্ন নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনাকে ও রাজশাহীতে এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে মনোনিত নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে পুনরায় সিটি করপোরেশনের উন্নয়নের জন্য জয়ী করার আহ্বান জানান এলাকার নারীদের। বর্তমান সরকারের ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সাড়ে চার বছরের রাজশাহী নগরীর উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন।
এদিকে, নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, রাজশাহীতে এতো পরিমাণ উন্নয়নের ছোয়া কোন সরকারের আমলে হয় নি। বিশ্বের মধ্যে রাজশাহী সবথেকে কম দূষণমুক্ত নগরীতে পরিণত হয়েছে। এই সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ভালবাসা, এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের চেষ্টা ও রাজশাহী মহানগরবাসী ও আ’লীগ নেতৃবৃন্দের সার্বিক সহযোগিতার ফল। লিটন ভাই ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে রাজশাহীতে এমন কোন এলাকা নেই যেখানে উন্নয়নের ছোয়া লাগে নি। যা বিএনপি-জামায়াত জোটের আমলে উন্নয়নের কথা চিন্তা করেনি নগরবাসী।
ডাবলু সরকার ওয়ার্ডের নারী নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে বলেন, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডসহ শিরোইল কলোনীর এলাকার প্রতিটি রাস্তা পাকা, ড্রেন নির্মাণ ও পরিবেশ উন্নতসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। এখন পর্যন্ত লিটন ভাই রাজশাহীর উন্নয়ন কিভাবে বৃদ্ধি করা যাবে তার জন্য ঢাকায় অবস্থান করেন।
ডাবলু সরকার মহানগর, থানা, ওয়ার্ড আ’লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের রাজশাহীকে জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও বিএনপি-জামায়াতের হাত থেকে বাঁচাতে সাংগঠনিক কার্যক্রমকে আরো সক্রিয় হওয়ার আহ্বান জানান। ওয়ার্ড পর্যায়ে আওয়ামী লীগের নারী নেতাকর্মীদের নির্বাচনী প্রচারণা করার জন্য প্রস্তুতির হওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, নগর আ’লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ইয়াসমিন রেজা ফেন্সি, নগর কৃষক লীগের সহসভাপতি বিপ্লব ও যুবলীগ নেতা তৌহিদুল হক সুমনসহ ওয়ার্ড আ’লীগের নেতাকর্মী ও অসংখ্য এলাকাবাসী।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ