রাজশাহীর টিবিপুকুর গণহত্যা দিবস আজ

আপডেট: এপ্রিল ১৩, ২০২৪, ৭:১১ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


রোববার (১৪ এপ্রিল) টিবিপুকুর গণহত্যা দিবস। দিবসটি পালনের জন্য প্রতিবছরের ন্যয় এবারও কর্মসূচি গ্রহণ করেছে রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ।
জানা গেছে, ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সদস্যরা রাজশাহী নগরীর টিবিপুকুর হাসপাতালে ঢুকে পড়ে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালায়। পাক বাহিনী নগরীর বিভিন্ন এলাকায় মুক্তিকামী জনগণের ওপর এলোপাথারি গুলিবর্ষণ করতে থাকে। ওইদিন টিবি হাসপাতালে গিয়ে কর্মচারীদের লক্ষ্য করে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে পাক বাহিনীর সদস্যরা।

গুলিতে হাসপাতালটির কর্মচারী আবদুল বারি হাওলাদার, আবদুল কাইউম ও মো. সেলিম নিহত হন। ন্যক্কারজনক এ হত্যাকা-ের পর দুদিন ধরে মরদেহ হাসপাতালের মেঝেতেই পড়ে থাকে। দুদিন পর শহীদ আবদুল বারি হাওলাদারের সদস্যরা শিতলাই এলাকায় অবস্থানের পর হাসপাতালে এসে মেঝেতেই তিনটি মরদেহ রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে।

এরপর স্বজনরা হাসপাতালের দরজার একটি পর্দার কাপড়ে তিনটি মরদেহ জড়িয়ে টিবি পুকুরের পাশে গণকবর দেন। ১৪ এপ্রিলের গুলিবর্ষণে বহু হতাহত হয়েছিল। পরবর্তীতে তাদের খোঁজ পাওয়া যায় নি। এ ঘটনার স্মরণে শহীদ আবদুল বারি হাওলাদারের সন্তান ফটোসাংবাদিক বুলবুল আহমেদ ২০০৬ সালে তার পিতার গণকবরটিতে স্মৃতিফলক বসানোর ব্যবস্থা করেন। মূলত তখন থেকেই ১৪ এপ্রিল টিবিপুকুর গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করা হয়ে থাকে।

যার ধারাবাহিকতায় এবারও রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে দিবসটি পালনের ডাক দিয়েছে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ১৪ এপ্রিল (রোববার) বিকাল ৪টায় টিবি পুকুর গণকবরে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং গণকবর প্রাঙ্গণে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

এতে সভাপতিত্ব করবেন রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ সভাপতি সাইদুর রহমান। সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আসলাম-উদ-দৌলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিতব্য এ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন শহীদ লেফটেনেন্ট সেলিম মঞ্চ রাজশাহীর সভাপতি প্রকৌশলী শামসুল আলম। এতে অন্যান্যের মাঝে জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের সহ: সভাপতি সালাউদ্দিন মিন্টু ও প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক আমানুল্লাহ আমানসহ রাজশাহীর বিশিষ্টজনরা বক্তব্য রাখবেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ