রাজশাহী অঞ্চলে হঠাৎ বৃষ্টি

আপডেট: মার্চ ৫, ২০১৭, ১:১৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহী অঞ্চলে হালকা বৃষ্টি হয়েছে। গতকাল শনিবার ভোর থেকে থেমে থেমে কয়েক দফা হালকা বৃষ্টি হয়। তবে বৃষ্টি থেমে গেলেও আকাশ মেঘলা থাকে সারাদিন। চারমাস পর এবছরে প্রথম বৃষ্টি হয়। থেমে থেমে বৃষ্টি হলেও রাস্তায় যানবাহন চলৃাচলে তেমন সমস্যা হয়নি। এসময় স্বাভাবিক ছিল চলাচল। হালকা বৃষ্টি হওয়ায় ফসলের কোন ক্ষতি হয় নি রাজশাহী অঞ্চলে। তবে বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে ফসলের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা ছিল বলে জানান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর কর্তৃপক্ষ।
এদিকে কৃষিবিদরা বলছেন, এই বৃষ্টিতে আমের মুকুলের তেমন ক্ষতি হবে না। তবে আরো কয়েকদিন আকাশ মেঘলা থাকলে আমের মুকুলের ক্ষতি হতে পারে।
রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য মতে, রাজশাহী অঞ্চলে আম গাছের মুকুল, মাঠের গম, মশুর ও আলু আছে। এই হালকা বৃষ্টিতে এসব ফসলের কোন ক্ষতি হয়নি। তবে বৃষ্টিতে তেমন কোন উপকার হবে না। এদিকে আবহাওয়া অফিসের সুত্র মতে, রাজশাহী অঞ্চলের আকাশ দু’দিন ধরে মেঘলা রয়েছে। তবে এ সপ্তার ক’দিন মেঘলা আকাশ থাকার সম্ভাবনা আছে। এ অঞ্চলের উপর দিয়ে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। গত বছরের অক্টোবর মাসে রাজশাহীতে শেষ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছিল।
গতকাল শনিবার রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলম বলেন, ভোর ৬টা ৫ মিনিটে হালকা বৃষ্টি শুরু হয়। সকাল সাড়ে ৭টা ৪০ পর্যন্ত বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় শূন্য দশমিক ২ মিলিমিটার। এরপর সকাল ১০টা থেকে ১০টা ১০ মিনিট পর্যন্ত আবার বৃষ্টি শুরু হয়। তখন রেকর্ড করা হয় আরো শূন্য দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়। দুই দফায় মোট বৃষ্টিপাত হয় শূন্য দশমিক ৪ মিলি মিটার।
তিনি বলেন, রাজশাহীতে হালকা বৃষ্টি হয়েছে। এসময় দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়। তবে বেশি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা কম। এ সপ্তাজুড়ে এ অঞ্চলের আকাশ মেঘলা থাকতে পারে। দিনের সবোর্চ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনি¤œ ছিল ২০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সূর্যোদ্বয় সকাল ৬টা ২৫ মিনিট ও সূর্যোস্ত সন্ধ্যা ৬ টা ৯ মিনিটে হয়।
রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দেব দুলাল ঢালি বলেন, রাজশাহীতে যে পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে এতে আমের মুকুল, মাঠে গম, আলু ও মশুরের তেমন ক্ষতি হয়নি। তবে বৃষ্টির পরিমাণ বেশি হলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কারণ মাঠে এখনো ফসল পড়ে আছে। বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে ও আকাশ মেঘলা থাকলে আমের মুকুল ও ফসলের ক্ষতির কারণ হতে পারে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ