রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে লড়বেন ৫৮ প্রার্থী বাদ পড়লেন ১ চেয়ারম্যান ২ সদস্য প্রার্থী

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২, ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দিনব্যাপী প্রার্থীদের দাখিল করা মনোনয়নপত্র বাছাই করা হয়েছে। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই যাচাই-বাছাই কার্যক্রম চলে। পরে জেলা রিটার্নিং অফিসার হিসেবে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল চূড়ান্ত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। বাছাইয়ে তিন জন বাদ হওয়ায় এখন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ৫৮ প্রার্থী।
যাচাই-বাছাই কার্যক্রম চলাকালে দেখা যায়- মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার ইকবালের মনোনয়নপত্রে আয়কর রিটার্ন দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেননি। সেজন্য তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তিনি মহানগরীর কাদিরগঞ্জ দড়িখড়বোনা এলাকার বাসিন্দা। এছাড়াও ঋণ খেলাপি হওয়ায় ৫ নম্বর ওয়ার্ডের (দুর্গাপুর) সাধারণ সদস্য পদপ্রার্থী মোহাম্মদ গোলাপ হোসেন এবং মো. রেজাউল করিমের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং অফিসার আব্দুল জলিল বলেন, নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনের আয়কর রিটার্ন দেওয়া বাধ্যতামূলক। তবে মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার ইকবালের মনোনয়নপত্রে আয়কর রিটার্ন দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেননি। এজন্য যাচাই-বাছাই শেষে তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। তবে অন্য তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৈধ চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, দেওপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. আক্তারুজ্জামান এবং রাজশাহী জেলা বিএনপির সদস্য আফজাল হোসেন।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক বলেন, আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ছাড়া আরও দুজন সাধারণ সদস্য পদপ্রার্থীকেও ঋণ খেলাপির জন্য বাদ দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে তাদের আপিল করার সুযোগ রয়েছে। তারা রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে গিয়ে আপিল করতে পারবেন।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক জানান, আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে রাজশাহীতে মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিনে ছিল গত বৃহস্পতিবার। এই নির্বাচনে লড়তে চেয়ারম্যান পদে চারজন, নয়টি সাধারণ সদস্য পদে ৩৯ জন ও তিনটি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। মোট প্রার্থী ছিলেন ৬১ জন। আজ যাচাই-বাছাই শেষ তিনজন প্রার্থীর বাতিল হলো। এখন ৫৮ জন চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে যাচাই-বাছাই কার্যক্রম চলাকালে উপস্থিত ছিলেন- স্থানীয় সরকার বিভাগের রাজশাহীর উপ-পরিচালক শাহানা আখতার জাহান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো. ইফতে খায়ের আলম, রাজশাহী জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি অনিল সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। এছাড়া রাজশাহী জেলার বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন সরকারি দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এই কার্যক্রম চলাকালে উপস্থিত ছিলেন।