রাজশাহী-ঢাকা রেল যোগাযোগ বন্ধ ||পদ্মা ও ধূমকেতুর যাত্রা বাতিল

আপডেট: আগস্ট ২১, ২০১৭, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পৌলী এলাকায় বন্যার পানির প্রবল চাপে অ্যাপ্রোচ সড়কে ধস নামায় দেশের উত্তর ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে। গতকাল রোববার ভোরে পানির চাপে অ্যাপ্রোচ সড়কে প্রায় ৩০ ফুট গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।
পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী জানান, বন্যার পানির প্রবল চাপে অ্যাপ্রোচ সড়কের মাটি ও গার্ডার সরে যাওয়ায় ৩০ ফুট গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এই রুটে রেল চলাচল স্বাভাবিক করতে প্রায় ২৪ ঘণ্টা সময় লাগবে। রেল শ্রমিকরা কাজ করছেন। আজ সোমবারের মধ্যে রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হতে পারে বলেও জানান তিনি।
এদিকে ঢাকার সঙ্গে রেলযোগাযোগ বন্ধ থাকায় যাত্রীরা পড়েছেন দুর্ভোগে। টিকিট কেনা থাকলেও যাত্রীরা গতকাল রেলপথে ঢাকা যেতে পারেননি। ফলে তাদের ঢাকা যেতে হয়েছে বাসে। হঠাৎ করে বাস টার্মিনালে গিয়ে সেখানেও টিকিটের জন্য যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। রেলসেতু মেরামত না হওয়া পর্যন্ত রাজশাহীর যাত্রীদের ট্রেন ছাড়া বিকল্প উপায়ে ঢাকা যেতে হবে। এক্ষেত্রে বেশ চাপ বেড়েছে বাসে।
পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সুপারিন্টেন্ড জিয়াউল আহসান জানান, রোববার সকালে সিল্কিসিটি এক্সপ্রেস যাত্রাবিরতিতে থাকে। তবে এ দিন বিকেলে আন্তঃনগর ট্রেন পদ্মা এক্সপ্রেস ও রাতে ধূমকেতু এক্সপ্রেস রাজশাহী থেকে ঢাকা যায়। বন্যায় পৌলি রেলসেতু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এ দুটি ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে।
জিয়াউল আহসান বলেন, যাত্রা বাতিলের কারণে যাত্রীরা টিকিট ফেরত দিয়ে টাকা নিতে পারছেন। এছাড়া চাইলে তারা যাত্রার তারিখও পরিবর্তন করতে পারছেন। এতে দুর্ভোগ অনেকটাই কমছে বলে দাবি এই রেল কর্মকর্তার।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ