বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

রাজশাহী বিভাগে ৪৭ কোটি ৪৭ লাখ টাকা ব্যয়ে মৎস্য অভয়াশ্রম প্রতিষ্ঠা হবে

আপডেট: December 9, 2019, 1:17 am

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহী বিভাগের ৮টি জেলার ৬৫টি উপজেলায় (সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ ও তারাশ উপজেলা বাদে) মোট ৪৭ কোটি ৪৭ লাখ টাকা ব্যয়ে মৎস্য অভয়াশ্রম প্রতিষ্ঠা করা হবে। আগামি বছরের জানুয়ারি মাসে শুরু হয়ে ২০২২ সালের ডিসেম্বর শেষ হবে।
রাজশাহীর পিআইডির কার্যালয় থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মো.আশরাফ আলী খান খসরু এমপি গতকাল রোববার সকালে রাজশাহী বিভাগে মৎস্যসম্পদ উন্ন্য়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন। মৎস্য অভয়াশ্রম প্রতিষ্ঠা করে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি, গ্রামীণ বেকার ও ভূমিহীন জনগোষ্ঠী এবং জেলে সম্প্রদায়ের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অধিক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্যে এ প্রকল্প উদ্বোধন করা হয়।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মৎস্য সম্পদের গুরুত্বারোপ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কুমিল্লার একটি অনুষ্ঠানে বলেছিলেন মৎস্য হবে আমাদের দ্বিতীয় অর্থ উপার্জনকারী সম্পদ। তিনি বলেন, সারা বিশে^ যখন অর্থনৈতিক ধ্বস নেমেছে তখন বাংলাদেশের অর্থনীতির উন্নয়ন হচ্ছে। সারা বিশে^ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন এখন রোল মডেল। বাংলাদেশ জনবহুল দেশ, দেশের জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করতে হবে। আমাদের মানসিকতার পরিবর্তন দরকার যাতে আমরা কাজকে কাজ মনে করতে পারি। শেখ হাসিনার দর্শন সবাইকে কাজ দেয়া। আর এর জন্য দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে আইসিটি সেক্টরের উন্নয়ন করা হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, পৃথিবীতে মাংসের চেয়ে মাছের চাহিদা বাড়ছে। গ্রামীণ পর্যায়ে মৎস্য চাষের সুফল পৌঁছে দিতে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
অনুষ্ঠানে মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক পারভেজ রায়হান এবং রাজশাহী বিভাগের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের উর্ধ্বতন মৎস্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।