রাজশাহী শিগগিরই ‘প্রযুক্তি নগরী’ হবে : পলক

আপডেট: জানুয়ারি ২৮, ২০২২, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহীর মাদ্রাসা ময়দানের জনসভায় রাজশাহীর মাটিতে হাইটেক পার্ক স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতি পূরণে রাজশাহী পদ্মাপাড়ে ৩০ একর জমির উপর হাইটেক পার্ক স্থাপন করা হয়েছে। খুব অল্প দিনের মধ্যে রাজশাহী একটি প্রযুক্তি নগরী হিসেবে গড়ে উঠবে ।

প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে রাজশাহী বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক আয়োজিত স্টার্টআপ ক্যাম্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। জুনাইদ আহমেদ পলক আরও বলেন, গত ১৩ বছরে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে জননেন্ত্রী শেখ হাসিনার স¦প্নের রূপকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে সজিব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বে।

‘আমরা শিল্প বিপ্লবের অংশ হবো না; আমরা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্ব দেব’- সজিব ওয়াজেদ জয়ের এ উক্তি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের নতুন উদ্ভাবন খুঁজতে হবে, নতুন প্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে হবে।

রাজশাহী নগর পিতা এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সুস্থ্যতা কামনা করে মন্ত্রী বলেন, যিনি নিরাপদ ও পরিচ্ছন্ন নগর গড়েছেন তিনি তাড়াতাড়ি অসমাপ্ত কাজগুলোও সমাপ্ত করবেন।

স্টার্টআপ ক্যাম্পের উদ্বোধন শেষে জুনাইদ আহমেদ পলক উদ্যোক্তাদের জন্য একটি সেশন পরিচালনা করেন। সেশানে তিনি উদ্যোক্তদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর তৈরি করা সুযোগগুলো তুলে ধরেন। এরপর মন্ত্রী সাত জন উদ্যোক্তার মাঝে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের স্পেসের বরাদ্দপত্র হস্তান্তর করেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সারাদেশে স্থাপিত সকল স্থাপনাগুলোতে কমপক্ষে একটি করে ফ্লোর স্টার্টআপসমূহের জন্য বিনামূল্যে বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। উক্ত কর্তৃপক্ষ এই ফ্লোরগুলোতে বিদ্যমান মোট ১৫১টি স্টার্টআপ এক বছরের জন্য কো-ওয়ার্কিং স্পেস, লজিস্টিক ও ইউটিলিটি সাপোর্ট এর পাশাপাশি তাদের জন্য এক বছর ব্যাপি ইন-হাউজ মেন্টরিং ফর স্টার্টআপ (আইএমএস) এর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ