রাজস্ব আহরণে ভূমিকা রাখবে ই-ফাইলিং

আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০১৭, ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


রাজস্ব আহরণে ডিজিটাল নথি ব্যবস্থাপনা (ই-ফাইলিং) বড় ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান ও অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. নজিবুর রহমান।
রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের কনফারেন্স ভবনে ই-ফাইলিংয়ের উদ্বোধনকালে সভাপতির মন্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ই-ফাইলিং স্থাপনের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের পথে এনবিআর আরো এক ধাপ এগিয়ে গেলো। আশা করছি রাজস্ব আহরণে ই-ফাইলিং বড় ধরনের ভূমিকা রাখবে।
এ সময় এনবিআর চেয়ারম্যান উপস্থিত সবাইকে নতুন ইংরেজি বছরের শুভেচ্ছা জানান। একই সময়ে উপস্থিত কর্মকর্তারা জন্মদিন উপলক্ষে এনবিআর চেয়ারম্যানকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ও জন্মদিনের কেক কাটেন।
নজিবুর রহমান বলেন, নভেম্বর মাসে আমরা আয়কর মেলা ও আয়কর সপ্তাহ আয়োজন করে করদাতাদের বিপুল সাড়া পেয়েছি। চলতি জানুয়ারি মাসে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উদযাপিত হবে। এর পাশাপাশি গত ২১ ডিসেম্বর থেকে কর এনফোর্সমেন্ট মাস চলছে। এনফোর্সমেন্ট মাসে আমাদের প্রতিদিনই অর্জন হচ্ছে। এ মাস উপলক্ষে এনবিআরের সামনে যে বাঘ রেখেছি, যা পুরো মাসই উন্মুক্ত থাকবে। মাসে শেষে তা আবার খাঁচায় ঢোকানো হবে।
তিনি বলেন, আমাদের সম্মানিত করদাতাদের সঙ্গে নিয়ে পুরো বছরই আমাদের সহকর্মীরা যথেষ্ট পরিশ্রম করেছেন। রাজস্ব আহরণে তারা অবদান রেখেছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ভিশন-২০২১ ও ২০৪১-এর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। রাজস্ব উন্নয়নের অক্সিজেন। আশা করছি অর্থমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা বছর শেষে নির্ধারিত রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারব।
অবসরে যাওয়া এনবিআরের সদস্য (ইন্টারন্যাশনাল ট্যাক্সেস) চৌধুরী আমির হোসেনকে উদ্দেশ্য করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের সহকর্মী চৌধুরী আমির হোসেনের সর্বশেষ কর্মদিন আজ। আমি তার সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। তিনি তার বর্ণাঢ্য কর্মজীবন শেষ করে নতুন জীবনে প্রবেশ করছেন। আশা করি সেখানেও তিনি সফল হবেন।
সরকারি অফিসে গতি-স্বচ্ছতা ও দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণকে সেবা প্রদান ও কাগজের ব্যবহার কমিয়ে পরিবেশবান্ধব অফিস সৃষ্টির লক্ষ্যে সরকারি অফিসে ধারাবাহিকভাবে ই-ফাইলিং সিস্টেম চালু করছে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্পের আওতায় যা বাস্তবায়ন হচ্ছে।