রাজ্জাকের সেই নামফলকটি সংস্কার হলো

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭, ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এফডিসিতে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সামনে বরেণ্য অভিনেতা নায়ক রাজ্জাকের নামে যে নামফলক আছে, সংস্কারের অভাবে তা অনেকেই ভুলে যান। বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন হওয়ার পরও অনেক দিন পর্যন্ত অবহেলায় পড়ে ছিল ফলকটি। গত শনিবার দুপুরে এফডিসিতে গিয়ে দেখা যায়, নামফলকটির সংস্কারকাজ চলছে। আর এই কাজের দেখাশোনা করছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।
জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের শুভেচ্ছাদূত হওয়ার পর ২০০১ সালে এফডিসির চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সামনে নায়করাজ রাজ্জাকের সম্মানে নামফলক স্থাপন করা হয়। কিন্তু বহু বছর ধরে অযত্ন আর অবহেলা পড়েছিল। নামফলকে শেওলা আর আশপাশের গাছপালা জন্মানোর কারণে নামফলকটি দেখা যেত না।
জায়েদ খান বলেন, ‘বাংলাদেশে জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের শুভেচ্ছাদূত মনোনীত হওয়ার বিরল গৌরবে ভূষিত হয়ে যে অনন্য আন্তর্জাতিক ভাবমূর্তি অর্জন করেছেন রাজ্জাক স্যার, তারই স্বীকৃতিস্বরূপ এফডিসি আর বাংলাদেশের সব চলচ্চিত্র শিল্পী ও কলাকুশলীদের পক্ষে এই নামফলক স্থাপন করা হয়। কিন্তু এত বড় অর্জনের এই ফলকটি বহুদিন ধরে অযত্ন-অবহেলায় পড়ে ছিল। বাংলাদেশের মহানায়কের এই নামফলকের পাশে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যালয় চকচক করছে। অথচ যিনি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন, সেই নায়করাজ রজ্জাকের এই নামফলক এভাবে অবহেলায় পড়ে থাকবে! অবাকও হয়েছি! চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে কত মানুষ, কারও চোখে পড়ল না।’
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান আরও বলেন, ‘রাজ্জাকের মতো এত বড় মাপের অভিনেতার সম্মানে স্থাপিত নামফলক এফডিসিতেই যদি এমন অবহেলা আর অযত্নে পড়ে থাকে, তাহলে বাইরে তাঁকে কে মনে রাখবে? এটা আমাদের দায়িত্ব। সেই দায়িত্ববোধ থেকে কাজগুলো করা।’
কথা প্রসঙ্গে জায়েদ খান জানান, রাজ্জাকের সম্মানে স্থাপিত এই নামফলকের চারপাশে ফুলের গাছ থাকবে। একটি স্পটলাইটও থাকবে, যাতে রাতে দূর থেকে ফলকটি সবাই দেখতে পায়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ