রাণীনগরে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

আপডেট: জুন ২, ২০২১, ২:৩৬ অপরাহ্ণ

আব্দুর রউফ রিপন, নওগাঁ প্রতিনিধি:


নওগাঁর রাণীনগরে একটি গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে একজন বীরমুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পারইল গ্রামে। এই বিষয়ে লাঞ্ছিত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোবারক আলী মাঝির ছেলে নূরুজ্জামান বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে রাণীনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে গত শুক্রবার (২৮মে) দুপুরে মোবারক আলী মাঝির পৈত্রিক সম্পত্তির সীমানাধীন জমিতে রোপন করা একটি ইউক্যালিপটাস বড় গাছের অর্ধেকটা (গাছের মাথা) হাত করাত দিয়ে কেটে ফেলে একই গ্রামের মৃত আব্বাস আলী মাঝির ছেলে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আফজাল হোসেন মাঝি। এসময় বীরমুক্তিযোদ্ধা মোবারক আলী মাঝি গাছটি কর্তনের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত লাঠিসোটা বের করে সকলের সামনে মারতে উদ্যত হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। অভিযুক্ত মুক্তিযোদ্ধার অন্যান্য গাছ কর্তনসহ মারার হুমকি-ধামকী প্রদান করে। এতে করে মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের সদস্যরা চরম আতঙ্কে রয়েছেন।
লাঞ্ছিত বীরমুক্তিযোদ্ধা মোবারক আলী মাঝির ছেলে নূরুজ্জামান বলেন অভিযুক্ত দীর্ঘদিন যাবত কারণে-অকারণে আমাদের সঙ্গে বিবাদ করে আসছে। সে প্রভাবশালী হওয়াই জোরপূর্বক আমাদের জায়গা দখল করে সে বাড়ি নির্মাণ করেছে। এছাড়াও সে নানা ভাবে আমাদেরকে হয়রানী করে আসছে। তাকে বার বার নিষেধ করলেও সে তা কর্নপাত করে না। আমরা মাষ্টারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ।
অভিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আফজাল হোসেন মাঝি বলেন আমার বাসার উপর গাছটি ঝড়ে ভেঙ্গে পড়েছে। আর মোবারক আলী বলছেন যে গাছটি আমি কেটেছি। অভিযোগটি সম্পন্ন মিথ্যে ও ভিত্তিহীন।
রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিন আকন্দ বলেন অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।