রাণীনগরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে বিজয়ী দল পারইল ইউপি

আপডেট: মে ২৫, ২০২২, ৪:৫৯ অপরাহ্ণ


নওগাঁ প্রতিনিধি :


‘বঙ্গবন্ধুর পরিবার ক্রীড়াঙ্গনের বাতিঘর’ এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে নিয়ে নওগাঁর রাণীনগরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) উপজেলা পর্যায়ের চ‚ড়ান্ত খেলায় শিরোপা জিতেছে পারইল ইউপি দল। আর বিজিত হয়েছে একডালা ইউপি দল। প্রত্যন্ত এলাকার শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে মেধাবী খেলোয়ার খুঁজে বের করে আনতেই প্রতি বছরের ন্যায় চলতি বছরও সারা দেশে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) বিকেলে উপজেলার শেরএ বাংলা সরকারি মহাবিদ্যালয় মাঠে টুর্নামেন্টের চ‚ড়ান্ত খেলার উদ্বোধন করেন নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য¡ মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহাদাত হুসেইনের সভাপতিত্বে ও যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আশিষ কুমার ঘোষের সঞ্চালনায় খেলা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে ট্রপি ও অন্যান্য পুরস্কার তুলে দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু, ভাইস চেয়ারম্যান জার্জিস হাসান মিঠু, ফরিদা বেগম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল বারী,

যুগ্ম সম্পাদক গোলাম হোসেন আকন্দ। এছাড়াও এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক, উপজেলা যুবলীগের সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সজল, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন জয়, পারইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম, একডালা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শাহজাহান ইসলাম প্রমুখ।

গত ২১ মে থেকে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন দল অংশগ্রহণ করে। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় উপজেলা প্রশাসন এই টুর্নামেন্ট বাস্তবায়ন করে। চ’ড়ান্ত খেলায় পারইল ইউনিয়ন দল ১-০গোলে একডালা ইউনিয়ন দলকে হারিয়ে বিজয়ী হয়।

এসময় সাংসদ আনোয়ার হোসেন হেলাল বলেন মেধাবী জাতি গঠনে খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই। সুস্থ্য ও সুন্দর দেহ-মন চাইলে অবশ্যই প্রতিদিনের রুটিনে খেলাধূলার জন্য সময় বরাদ্দ রাখতে হবে।

খেলাই পারে একজন শিক্ষার্থী কিংবা একজন টিনএজ যুবককে মাদকসহ অন্যান্য মন্দ কাজ থেকে দূরে রাখতে। তাই সন্তানরা নিয়মিত খেলাধূলার চর্চা করছে কিনা সেদিকে অবশ্যই পরিবারের কর্তাব্যক্তিদেরও কঠোর ভাবে নজরদারী করা উচিত।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ