রাণীনগরে সিনজেনটাকর্মী তিনদিন থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ || আতঙ্কে পরিবার

আপডেট: মার্চ ১, ২০১৭, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ

রাণীনগর প্রতিনিধি



নওগাঁর রাণীনগরে সিনজেনটা কোম্পানির এমরান হোসেন (২২) নামে এক মাঠ উন্নয়নকর্মী রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজের একদিন পর স্থানীয় লোকজন তার ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও ব্যাগ পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় জমা দিয়েছে। তার সন্ধান না পাওয়ায় পরিবারে চরম আতঙ্ক আর উদ্বেগ বিরাজ করছে। এমরান রাণীনগর উপজেলার কালীগ্রাম বড়িয়াপাড়া গ্রামের মোকলেছুর রহমানের ছেলে।
নিখোঁজ এমরান হোসেনের মামা হোসেন আলী ও ভগ্নিপতি সাইদ হোসেন জানান, গত প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে সিনজেনটা কোম্পানির ফিল্ড ডেভেলপার হিসেবে চাকরি নিয়ে রাণীনগর সদরের পূর্ববালু ভরা গ্রামে গোলাম হোসেন ডিজেলের বাসায় ভাড়া থাকতো। সেখান থেকেই এমরান তার চাকরির কাজ চলতো। সপ্তার প্রতি বৃহস্পতিবার বাড়িতে গিয়ে শনিবার আবার কর্মস্থলে চলে যেতো। গত সোমবার বাসার মালিক ডিজেল হোসেনসহ তার বন্ধুরা ফোন করে তাকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান। এরপর থেকেই তাকে খোঁজা-খোঁজি শুরু করে। এর মধ্যে গত সোমবার সন্ধ্যায় রাণীনগর রেল-লাইনের দক্ষিণ চকের ব্রিজ এলাকার পাকারাস্তার পার্শ্বে ঝোপের মধ্য থেকে একটি সাইকেল ও একটি ব্যাগ স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে সন্ধ্যায় থানায় জমা দেয়। খবর পেয়ে এমরানের আত্মীয় স্বজনরা থানায় গিয়ে ব্যাগ ও বাইসাইকেল এমরানের ব্যবহৃত বলে সনাক্ত করে। তবে এমরানকে অপহরণ করা হয়েছে নাকি হত্যা করা হয়েছে নাকি অন্য কোন ঘটনা রয়েছে তা নিয়ে পরিবারে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশও এমরানকে উদ্ধারে মাঠে নামে। কিন্তু গত দুই দিনেও তাকে উদ্ধার কিংবা সন্ধান করতে পারে নি পুলিশ ।
এ ব্যাপারে এমরানের সহকর্মী রাকিব হোসেন জানান, আমি আর এমরান একই বাসার একই রুমে থাকি। একই কোম্পানির রাণীনগর উপজেলার রেল লাইনের পূর্ব দিকে এমরান এবং রেল-লাইনের পশ্চিম দিকে আমি কর্মরত আছি। গত রোববার সন্ধ্যায় এমরান হোসেন জানিয়েছিল এক জায়গায় যাচ্ছি, ফিরতে দুইঘণ্টা দেরি হতে পারে বলে চলে যায়। এরপর আর বাসায় ফিরে আসে নি।
বাসার মালিক গোলাম হোসেন ডিজেল জানান, সন্ধ্যার পর এমরান বাসায় এসে সাইকেল নিয়ে বের হয়ে যায়। যাবার সময় বাসায় ফিরতে কিছু দেরি হতে পারে বলে জানিয়ে চলে যায়। এরপর সারারাত বাসায় ফিরে না আসায় এবং মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়ায় সকালে এমরানের বাড়িতে খবর দেয়া হয়। তবে এমরানের সঙ্গে কারো কোন দ্বন্দ্ব ছিলো না বলে জানান তিনি।
এ বিষয়ে রাণীনগর থানার ওসি (তদন্ত) জহুরুল হক জানান, সোমবার সন্ধ্যায় নিখোঁজ এমরানের ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও ব্যাগ স্থানীয় লোকজন ঝোপের মধ্যে পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে থানায় জমা দিয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত জিডি বা মামলা দায়ের করা হয় নি। তবে মঙ্গলবার রাতে মামলা হতে পারে। পাশাপাশি এমরানের পারিপার্শিক বিষয়াদি খোঁজ করে দেখা হচ্ছে এবং আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি তাকে উদ্ধারে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ