রাবিতে আ’লীগ নেতাকর্মীদের বাধায় নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ

আপডেট: ডিসেম্বর ২২, ২০১৬, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বাধায় বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা বন্ধ হয়ে গেছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল ৯টা থেকে ইনস্টিটিউটের আওতাধীন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির দুটি কর্মচারী পদে নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষা চলাকালে সকাল পৌনে ১০টার দিকে মতিহার থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে ১৫-২০ জন নেতকার্মী ইনস্টিটিউটের পরিচালকের অফিসে যান। সেখানে মৌখিক পরীক্ষা চলাকালীন ভেতরে প্রবেশ করে তারা টেবিল চাপড়িয়ে ও বিভিন্ন হুমকি দিয়ে পরীক্ষা বন্ধ করে দেন।
ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর আনসার উদ্দিন বলেন, মৌখিক পরীক্ষা চলাকালে কয়েকজন নেতকর্মী ভেতরে ঢুকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মহানগর নেতাদের সাথে কথা না বলে ভাইভা বোর্ড বসানো হয়েছে, এটা বন্ধ করতে হবে। তারা কোনো সময় না দিয়েই হট্টগোল করে পরীক্ষা বন্ধ করে দেন। এরপর আর কোনো প্রার্থীর পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে মিটিং করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’
মতিহার থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন বলেন, বয়সসীমাসহ কিছু শর্ত শিথিল করার দাবিতে আমরা ভাইভা বোর্ড স্থগিত করার অনুরোধ করেছি। আমাদের নির্যাতিত নেতকর্মীদের কোনো সুযোগ দেয়া হচ্ছে না, এটা হতে পারে না।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান। এখানে বহিরাগতরা কেউ বিধিবহির্ভুত কার্যক্রমে জড়ালে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ঘটনার বিষয়ে কর্তৃপক্ষ লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।’