রাবিতে ভাষা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সেমিনার

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭, ১:০৮ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ‘বাংলাদেশের ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির সাম্প্রতিক প্রবণতা’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ কলা ভবনের বাংলা বিভাগের গ্যালারিতে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।
ভাষা-সাহিত্য-সংস্কৃতি গবেষণা কেন্দ্র আয়োজিত এ সেমিনারে প্রধান আলোচক ছিলেন গবেষক ড. গোলাম মুরশিদ। আবুল হাসান চৌধুরীর সঞ্চালনায় সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন নর্থবেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল খালেক। সভাপতিত্ব করেন গবেষণা কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যাপক ড. পিএম সফিকুল ইসলাম।
প্রধান আলোচক গোলাম মুরশিদ বলেন, সংস্কৃতি একটি চলমান প্রক্রিয়া। বছরের পর বছর, বয়ে চলা নদীর মত এটা চলতে থাকে। কেউ এর গতিকে আটকাতে পারে না। বাংলাদেশের সংস্কৃতি মূলত গ্রামীণ সংস্কৃতি। কিন্তু বর্তমান সময়ে আমরা নিজেদের সংস্কৃতি চর্চা থেকে ধীরে ধীরে দূরে সরে যাচ্ছি। যার ফলে দিনদিন আমরা নিজস্ব সংস্কৃতি হারিয়ে ফেলছি। ফলে সংস্কৃতি এখন হুমকির মুখে।
তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ কখনোই স্বাধীন ছিল না। বৌদ্ধ, খ্রীস্টান, মুসলিম শাসক গোষ্ঠীর দ্বারা বছরের পর বছর এই দেশ শাসিত হয়ে এসেছে। এ দাসত্বের পরাবৃত্তি থেকে আমরা আজও বেরিয়ে আসতে পারি নি। এখনো আমাদের মধ্যে দাসত্বের প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়।ৎ
নারীদের অগ্রগতির বিষয় উল্লেখ করে ড. মুরশিদ বলেন, ১৯০১ সালের নারী আর বর্তমান সময়ের নারীদের মধ্যে বিস্তর তফাৎ রয়েছে। সমাজে এখনও অনেক পুরুষ আছেন, যারা নারীদেরকে ভোগের দৃষ্টিতে দেখেন। কিন্তু নারীরা আজ আর শুধু রান্নাঘরের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। তারা বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন। এমনকি তারা পৃথিবীর শীর্ষ চূড়া এভারেস্টেও দেশের পতাকা উড়িয়েছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ