রাবির কৃষি অনুষদ এলাকায় অবাধে বৃক্ষ নিধন

আপডেট: ডিসেম্বর ২২, ২০১৬, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



রাজশাজী বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদ এলাকায় রেললাইনের দুই পাশে অবাধে বৃক্ষ নিধনের ঘটনা ঘটছে। ক্যাম্পাসের অনত্যম সৌন্দর্যম-িত এলাকায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের এভাবে বৃক্ষ নিধনের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
গতকাল বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদ এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় রেল লাইনের দুই পাশের গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। রেললাইনের দুই পাশের সব গাছ কাটায় উজাড় হয়েছে সুবজের সৌন্দর্যম-িত আবহ। বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রকৌশলী এমরান আলী বলেন, রেললাইনের পাশের গাছগুলো রেলওয়ের সম্পত্তি। আমরা এসব গাছ কাটার পক্ষে নই। কিন্তু আমাদের আওতাধীন না হওয়ায় আমাদের কিছু করার নেই।‘
বৃক্ষ নিধনের ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মুন মহন বাপ্পা নামের এক শিক্ষার্থী লিখেছেন, ‘এভাবে নির্বিচারে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় রেললাইনের গাছ কাটা হচ্ছে। দেখার যেন কেউ নেই।‘
বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, গাছগুলো খুব বয়স্ক নয়। এছাড়া গাছগুলো রেললাইন থেকে বেশ দূরে। গাছের কারণে ট্রেন চলাচলে কোন সমস্যা হয় না। তবুও কেন গাছগুলো কাটা হচ্ছে জানি না। এভাবে গাছ কাটায় সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে, এছাড়া এটা পরিবেশের জন্যও ক্ষতিকার।
এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে, রাজশাহীর সামাজিক বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা ইমরান আহমেদ বলেন, ‘ট্রেন চলাচলে বিঘœতা, ঝড়ের মৌসুমে সমস্যাসহ কিছু অভিযোগের বিষয়ে রেল কর্তৃপক্ষে আমাদের চিঠি দিয়েছে। সেগুলো নিয়ে বিভাগীয় কমিশনারের সঙ্গে আলোচনা করে গাছগুলো কাটা হচ্ছে।
তিনি বলেন, সাধারণত কোন গাছ বয়স্ক হলেই কাটা হয়। তবে রেল কর্তৃপক্ষ বারবার চিঠি না দিলে ওই এলাকার গাছগুলো কাটা হতো না। আমরা রেল ও বন বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে আগামী বর্ষা মৌসুমে নতুন করে গাছ লাগানোর অনুমতি নেবার চেষ্টা করছি।’