রাবি ও চবিতে একই সময়ে ভর্তি পরীক্ষা, বিপাকে ভর্তিচ্ছুরা

আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০১৬, ১১:৫০ অপরাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক
২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৪ থেকে ২৭ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৩ থেকে ৩১ অক্টোবর এ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। তাদের বেছে নিতে হবে যেকোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।
এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়র কর্তৃপক্ষ বলছেন, তারা আগে সূচি ঘোষণা করেছেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ একই দাবি করছেন। তবে কেউই সূচি পরিবর্তন করে অবস্থান থেকে সরে আসছেন না। ফলে ভর্তিচ্ছুরা একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার অংশগ্রহণের সুযোগ হারাচ্ছেন। তারা যে কোনো একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা অংশ নিতে পারবেন।
খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ১৮ জুন ভর্তি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ করে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ২৭ জুন প্রকাশ করেছে।
দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৪ থেকে ২৭ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৩ থেকে ৩১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু দু’টি বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদ পরীক্ষা একই দিনে অনুষ্ঠিত হবে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কলা অনুষদের পরীক্ষা ২৬ অক্টোবর সকাল ৯ টা থেকে ১০ এবং ১১ টা থেকে ১২টা দুই শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। অন্যদিকে চট্টগ্রামে কলা অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা ২৬ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। ফলে ভর্তিচ্ছুরা দোটানায় পড়েছেন।
এছাড়া কেউ যদি ২৬ অক্টোবর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কলা অনুষদে পরীক্ষা অংশ নেয়। এরপর যদি ২৭ অক্টোবর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের পরীক্ষায় অংশ নিতে চায় তাহলে তাকে রাজশাহী আসতে হবে। এরপর আবার যদি ২৯ অক্টোবর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের পরীক্ষায় অংশ নিতে চায় তাহলে আবার তাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে হবে।
সজীব আহমেদ নামের এক ভর্তিচ্ছু বলেন, দু’টি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষার একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। এতে একটি ইউনিটে একই দিনে পরীক্ষা। তাই যে কোনও একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দেওয়া হবে না। এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি।
ইসতিয়াক আহমেদ নামে অন্য এক শিক্ষার্থী বলেন, প্রায় সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ে কমবেশি ফরম তুলেছি। কিন্তু রাবি ও চবির পরীক্ষা একই সময়ে ঘোষণা করা হয়েছে। এমনভাবে সূচি প্রকাশ করেছে তাতে সবগুলো ইউনিটে পরীক্ষা দিতে গেলে দুই বার চট্টগ্রাম যেতে হবে। যা অনেক বিড়ম্বনার ও ঝুঁকি সাপেক্ষ। তাছাড়া অতিরিক্ত খরচ তো আছেই।’
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক কামরুল হুদা বলেন, ‘আমরা পরীক্ষার সময়সূচি আগে প্রকাশ করেছি। তাই আমাদের পরীক্ষা সূচি পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই।’ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মুহম্মদ মিজানউদ্দিন বলেন, ‘আমরা আগে ভর্তি পরীক্ষার সময় ঘোষণা করেছি। সে হিসেবে তাদের উচিত ছিল আমাদের সঙ্গে এ্যাডজাস্টমেন্ট করা। এর আগের বছরও তারা এমনটা করেছিল। আমরা তাদেরকে বিষয়টা জানিয়েছিলাম কিন্তু তারা শোনেননি।’