রাবি সাবেক শিক্ষার্থী মোস্তাফিজ হত্যাকাণ্ড! দুর্গাপুরে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

আপডেট: October 25, 2020, 9:13 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি:


সাভারে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারানো রাবি শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে মৃতদেহ নিয়ে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। মানববন্ধন শেষে নিহত মোস্তাফিজুর রহমানকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পূর্ণ হয়েছে।
নিহত মোস্তাফিজুর রহমানের বাবা মজিবর রহমান জানান, এই বিষয়ে সাভার মডেল থানায় যোগাযোগ করা হয়েছে। সোমবার আমি সহ পরিবারের সদস্যরা সাভার মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করার জন্য প্রস্তুতি গ্রহন করেছি।
ওরাববার সকালে নওপাড়া দূর্গাপুর-মোহনগঞ্জ সড়কের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
রাবি শিক্ষার্থী দূর্গাপুরের মোস্তাফিজ হত্যাকাণ্ড মৃতদেহ নিয়ে এলাকাবাসীর মানববন্ধন। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিতের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন নিহত মোস্তাফিজুরের পরিবার, শিক্ষার্থী, ব্যাবসায়ী ও এলাকাবাসী।
নিহত মোস্তাফিজুর রহমান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি রাজশাহীর দূর্গাপুর উপজেলার নওপাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র।
মানববন্ধনে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা বলেন,আমরা একজন সংগ্রামী মানুষকে হারিয়েছি এর চেয়ে বড় দুঃখ জনক বিষয় আর কিছু হতে পারে না। আমার ভাইকে সাভারে হত্যা করা হয়েছে । ৪৮ ঘন্টার পরও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করতে পারেনি। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে এটাই আমাদের দাবি।
মোস্তাফিজ হত্যার নেপথ্য অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার, খুনের রহস্য উদঘাটন এবং ঘাতকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবির প্লেকার্ড হাতে অংশ নেন এলাকাবাসী। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, (পুঠিয়া- দূর্গাপুর) আসনের সাবেক এমপি জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোঃ আবুল হোসেন।
নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে নওপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতারের জোর দাবি জানাচ্ছি সেই সাথে ইউনিয়নবাসীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট প্রসাশন ও সরকারের কাছে মোস্তাফিজুর হত্যার সুষ্ট বিচার দাবি করছি।
নওপাড়া ইউপি সাবেক চেয়ারম্যান আজাদ রেজাউল করিম রেজা বলেন, একজন মেধাবী ছাত্রের এমন মৃত্যু মেনে নেয়ার মতো নয়, আমরা শোকাহত তিনি আরো বলেন নিহতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ও সন্ত্রাসীদের দ্রুত বিচারের দাবি জানাই।
উপস্থিতি ছিলেন, অধ্যক্ষ হোসেন আলী শাহ, দূর্গাপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হযরত আলী মাষ্টার, থানা সাধারন সম্পাদক আব্দুল মালেক পৌর সভাপতি বাবুল হোসেন,সাধারন সম্পাদক নওশেদ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ন কবির, জাতীয় পার্টির জেলা সদস্য রফিকুল ইসলাম। নওপাড়া ইউপি জাপা. সভাপতি হযরত আলী। শফি ডাক্তার, মিলন শাহ, রবিউল শাহ, হেলাল শাহ, , যুবলীগ নেতা তোফায়েল, জহুরুল, জয়নাল, রাবি শিক্ষার্থী আজিজুল ইসলাম, কবি জসীম উদ্দীন শেখ, তছলিম, মাহামুদ, মশিউর, ইবনুল সহ আরো উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, এলাকাবাসী সহ বিভিন্ন পেশাজীবি সর্বস্তরের জনসাধারণ।