রামদেবের নামে হাজার কোটি রুপির মানহানি মামলা

আপডেট: মে ২৬, ২০২১, ৭:০৪ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


কোভিড-১৯ চিকিৎসায় এলোপ্যাথি পদ্ধতি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ভারতীয় যোগগুরু রামদেবের বিরুদ্ধে এক হাজার কোটি রুপির মানহানি মামলা করেছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ)-এর উত্তরাখ- শাখা।
তাকে পাঠানো নোটিশে আইএমএ বলেছে, ভিডিওবার্তায় এলোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে রামদেবকে নিজের বিবৃতি প্রত্যাহার করতে হবে। এর জন্য ক্ষমাও চাইতে হবে তাকে। আর এ কাজে রামদেবকে সময় দেওয়া হয়েছে ১৫ দিন। ক্ষমা না চাইলে যোগগুরুকে এক হাজার কোটি রুপি জরিমানা গুনতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে আইএমএ।
আনন্দবাজার পত্রিকার খবর অনুসারে, শুধু নোটিশ পাঠিয়েই ক্ষান্ত হয়নি আইএমএ। উত্তরাখ-ের মুখ্যমন্ত্রী তিরথ সিংহ রাওয়াতকে রামদেবের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ারও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।
সম্প্রতি এক ভিডিওতে রামদেব বলেছিলেন, চিকিৎসা বা অক্সিজেন না পেয়ে যত মানুষ মারা গেছে তার চেয়ে বেশি মারা গেছে এলোপ্যাথিক ওষুধ খেয়ে। তার মতে, এলোপ্যাথি একটি দেউলিয়া হয়ে যাওয়া বিজ্ঞান।
ভারতীয় যোগগুরুর এমন বিতর্কিত মন্তব্যের পরপরই দেশজুড়ে শুরু হয় ব্যাপক সমালোচনা। এর মধ্যে রামদেবকে চিঠি লেখেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।
চিঠিতে তিনি বলেন, আপনার (রামদেব) মন্তব্যে দেশবাসী আহত হয়েছে। আমি আগেই এ নিয়ে আপনাকে ফোনে বলেছি। দেশবাসীর কাছে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা সৃষ্টিকর্তার সমান। তারা করোনার বিরুদ্ধে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়ছেন। আপনি শুধু করোনাযোদ্ধাদের অপমানিত করেননি, দেশের মানুষের অনুভূতিতেও আঘাত করেছেন। আশা করব, আপনি বক্তব্য প্রত্যাহার করার ব্যাপারে ভালোভাবে বিবেচনা করবেন।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ