রাসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে যোগ হলো আরো ১টি আধুনিক এসটিএস

আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২২, ৯:৫৫ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের উদ্যোগে মহানগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম আধুনিকায়নে আরো ১টি সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন (এসটিএস) এর যাত্রা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় ফলক উন্মোচন ও ফিতা কেটে রেলওয়ে সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি, প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন। রেলওয়ে এসটিএস এর কার্যক্রম শুরুর মাধ্যমে সিটি করপোরেশনের আধুনিক এসটিএস এর সংখ্যা হলো ৮টি। এরআগে গত ৩০ ডিসেম্বর মিশন হাসপাতাল সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন এবং বুলুনপুর সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনের কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধীন অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সিটি করপোরেশনের ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, রেলওয়ে (পশ্চিম) এর সিপিও আমিনুল হাসান, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী লিয়াকত শরীফ। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন নগর ভবন মসজিদের ইমাম আবুল খায়ের।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সরিফুল ইসলাম বাবু বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে রাজশাহীকে একটি পরিচ্ছন্ন, বাসযোগ্য, আধুনিক, উন্নত, স্বাস্থ্যসম্মত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে নিরসলভাবে কাজ করে যাচ্ছেন মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। তিনি নগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়নে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে সকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন স্থাপনের লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এরই ধারাবাহিকতায় আজকে ( বৃহস্পতিবার) আরো ১টি অত্যাধুনিক এসটিএস এর উদ্বোধন করা হলো। এটি নির্মাণে এলাকার পরিবেশ উন্নয়নসহ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। এখন থেকে এর খোলা স্থানে বর্জ্য থাকবে না। প্রতিদিনের বর্জ্য এসটিএস‘এ এসে জড়ো হবে। এতে করে পরিবেশ উন্নয়নের পাশাপাশি দূষণমুক্ত হচ্ছে শহর।

 

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন বলেন, মাননীয় মেয়র মহোদয় রাজশাহীকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ঝকঝকে তকতকে শহর হিসেবে গড়তে বর্জ্য ব্যবস্থার আধুনিকায়ন করছেন। সেই কাজের অংশ হিসেবে আজকে আরো একটি এসটিএস এর উদ্বোধন করা হচ্ছে। আরো কয়েকটি এসটিএস নির্মাণাধীন। আগামীতে প্রতিটি ওয়ার্ডে ১টি করে এসটিএস নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি আরো বলেন, যেখানে সেখানে বর্জ্য ফেলা যাবে না। এ ব্যাপারে নাগরিকদেরকে সচেতন হতে হবে। নগরীকে পরিচ্ছন্ন রাখতে নগরবাসীকেও সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করতে হবে। সকলের সহযোগিতায় পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর নগর গড়ে তোলা সম্ভব হবে। তাহলে মেয়র মহোদয় যে রাজশাহীর স্বপ্ন দেখেন, সেটির বাস্তবায়ন হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ২৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল আমিন আযব, ৭নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর উম্মে সালমা বুলবুলি, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন, রেলওয়ে (পশ্চিম) এর সিনিয়র ওয়েলফেয়ার অফিসার এসএম আকতার হোসেন, রেলওয়ে শ্রমিক লীগ ওপেন লাইন শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. আকতার আলী, রেলওয়ে শ্রমিক লীগ আরবিআর শাখার সহ-সভাপতি আইনুল হক, রাসিকের সহকারী প্রকৌশলী মীর শাহরিয়ার সুলতান পরাগ, সহকারী প্রকৌশলী তানজির রহমান বন্ধন, পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা (মনিটরিং) সাজ্জাদ আলী, ত্রাণ ও দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন মুন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রাসিকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোস্তাফিজ মিশু।