রাাজশাহীতে দুর্গাপূজার অনুষ্ঠানিকতা শুরু

আপডেট: অক্টোবর ২, ২০২২, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


মহাষষ্ঠীর মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ৫ দিনের সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব। রাজশাহীতে জমজমাট প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে দুর্গোৎসবকে ঘিরে। উৎসবের আমেজ বইছে, ঢাক-ঢোল কাঁসা ও শঙ্খের আওয়াজে বিভিন্ন মন্দির মুখরিত হয়ে উঠেছে। বুধবার (৫ অক্টোবর) বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে পাঁচ দিনের এ মহোৎসব।

জানা গেছে, শনিবার (১ অক্টোবর) সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে সায়াংকালে কল্পারম্ভ ও বোধন আমন্ত্রণসহ অধিবাসের মধ্য দিয়ে ষষ্ঠী পূজা সম্পন্ন হবে। এদিন সকাল থেকে চন্ডিপাঠে মুখরিত থাকবে সব মন্ডপ এলাকা। রোববার (২ অক্টোবর) উৎসবের দ্বিতীয় দিনে মহাসপ্তমীর পূজা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৬টা ৩০মিনিটে। সোমবার (৩ অক্টোবর) মহাঅষ্টমীর পূজা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে ও বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত হবে কুমারী পূজা। সন্ধিপূজা শুরু হবে সোমবার বিকেল ৪টা ৪৪ মিনিটে ও সমাপন বিকেল ৫টা ৩২ মিনিটের মধ্যে।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে নবমী পূজা। পুষ্পাঞ্জলি সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে। পরদিন বুধবার সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে দশমী পূজা আরম্ভ, পুষ্পাঞ্জলি সকাল ৮টায়। পূজা সমাপন ও দর্পণ বিসর্জন হবে সকাল ৮টা ৫০ মিনিটের মধ্যে। সন্ধ্যা-আরাত্রিকের পর প্রতিমা বিসর্জন ও শান্তিজল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সব আয়োজন।

এদিকে ধূপ-সিঁদুরের ঘ্রাণ আর কাঁসা- শঙ্খধ্বনিতে মুখরিত এখন পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী শাঁখারিবাজার। চলছে পূজার শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। আলতা, চুড়ি, টিপ কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন ক্রেতারা।

উৎসবের আমেজ শাঁখারিবাজারে বেশ কয়েক দিন আগেই লেগেছে। আজ থেকে ভিড় আরও বাড়বে। আগামী কয়েক দিনের বাড়তি চাপ সামলানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন দোকানদাররা। শাড়ি, মুকুট, অলংকার, চন্দন, প্রদীপ, ফুল, সিঁদুর, আলতা, কুমকুম, টিপ, শাঁখা, পলা, আবির, রঙিন কাগজের পাশাপাশি অর্ঘ্য দেওয়ার প্রয়োজনীয় সামগ্রী মিলছে শাঁখারিবাজারের বিভিন্ন দোকানে। সাদা পলা আর গোল লাল টিপ চলছে বেশি।