রিকসা চালক ফিরোজের স্বপ্ন পুড়ে ছাই

আপডেট: এপ্রিল ২২, ২০১৭, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি


উপার্জনের অবলম্বন বলতে একটি ব্যাটারি চালিত রিকসা। এই বাহনকে ঘিরে দিনভর পরিশ্রম করে যা আয় হতো তা দিয়ে চলতো সংসার। কিন্তু সেই বাহনটি আগুনে পুড়ে পুড়ে গেছে। সেই সঙ্গে পুড়েছে নগদ টাকা, একটি ছাগল ও ঘরের আসবাবপত্র। রিকসা চালক ফিরোজ এখন দিশেহারা।
নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভার চাঁচকৈড় খলিফাপাড়া মহল্লায় ফিরোজের বাড়ি। তার বাবা মারা গেছেন অনেক আগেই। বৃদ্ধ মা  ফিরোজা বেগমকে  (৬০) নিয়ে ফিরোজের সংসার। গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে রান্নার চুলার আগুন ছড়িয়ে পড়ায় ফিরোজের এমন অবস্থা।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর আবহাওয়া প্রতিকূলে ছিল। ফিরোজের মা লাকড়ি দিয়ে রাতের খাবার রান্না করছিলেন। বাতাসের বেগের সঙ্গে মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পুড়ে যায় সব কিছু। পরে স্থানীয়রা আগুন নেভালেও রক্ষা করা যায় নি কিছুই।
ফিরোজ জানায়, তিনি নিজে রিকসা চালিয়ে সংসার চালাতেন। স্বালম্বী হতে একটি গরু কিনতে চেয়েছিলেন। এজন্য একটি বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) থেকে ৬০ হাজার টাকা ঋণ তুলেছিলেন।  জীবিকার বাহন রিকসার সঙ্গে একটি ঘরসহ আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। এখন ঘুরে দাঁড়ানোর মতো অবস্থা নেই তার।