রিভার্স সুইং নিয়ে প্রস্তুত পেসাররা

আপডেট: আগস্ট ২২, ২০১৭, ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ইংল্যান্ড সিরিজ থেকে শিক্ষা নিয়ে বাংলাদেশ দলের পরিকল্পনায় বড় অংশ জুড়ে আছে এবার রিভার্স সুইং। পেসাররা ঘাম ঝরাচ্ছেন রিভার্স সুইংয়ে হাত পাকাতে। অতিথি পেসারদের রিভার্স সুইং ঠেকাতে একই রকম পরিশ্রম করছেন ব্যাটসম্যানরা।
তিন ধরনের বল দিয়ে অনুশীলন করছেন তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ও স্কোয়াডের বাইরে থাকা রুবেল হোসেন। কখনও নতুন বল, কখনো পুরানো বলে নেটে বল করছেন। আগে থেকেই তৈরি রাখা বলে অনুশীলন করছেন রিভার্স সুইং।
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার দলের অনুশীলন শেষে সংবাদ সম্মেলনে তাসকিন জানান নিজেদের প্রস্তুতি নিয়ে।
“অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের তুলনায় আমরা পিছিয়ে। তবে অনুশীলন করতে করতে আমরা এখন আগের চেয়ে ভালো। আমরা একেক সেশনে একেক রকম বল নিয়ে অনুশীলন করছি। রিভার্স সুইং বলেন, প্রথাগত সুইং বলেন, সব কিছু নিয়ে আমরা কাজ করছি। আশা করছি, আগে যা পারিনি এখন আমরা তা করতে পারবো।”
জশ হেইজেলউড, প্যাট কামিন্স ও জ্যাকসন বার্ডে গড়া অস্ট্রেলিয়ার পেস আক্রমণে সমীহ করছেন তাসকিন। তবে নিজেদেরও খুব একটা পিছিয়ে রাখছেন না তারা।
“ওদের পেসাররা অবশ্যই ভালো। তবে আমরাও ফেলে দেওয়ার মতো না। আমাদের পেসাররা অনেক বড় ম্যাচ জিতিয়েছে। আমরা এই সিরিজেও ভালো কিছু করতে পারি। সে রকম বিশ্বাস আমাদের আছে।”
ঢাকায় সবশেষ টেস্টেই জিতেছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে ইংল্যান্ডের ২০টি উইকেটই নিয়েছিলেন স্পিনাররা। প্রথম ইনিংসে ৩ ওভার বল করার সুযোগ মিলেছিল একমাত্র পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বির। দ্বিতীয় ইনিংসে বল হাতেই পান নি।
এবার পেসারদের ভূমিকা রাখার সুযোগ দেখছেন তাসকিন। নতুন বলে শুরুতে আঘাত কিংবা পুরান বলে রিভার্স সুইং করে রাখতে চান অবদান। তার বিশ্বাস, সবাই নিজের সেরাটা দিতে পারলে ঢাকা টেস্টে ভালো কিছুই অপেক্ষা করছে তাদের জন্য।
“দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট, এটা আনন্দের ব্যাপার। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যে ম্যাচটা জিতেছি, তা আমাদের অনুপ্রাণিত করে। আত্মবিশ্বাসটা সেখান থেকে বেড়েছে। শ্রীলঙ্কার মাটিতে তাদের হারিয়েছি। এ কারণেই বিশ্বাসটা বেশি। “চার-পাঁচ বছর আগে, যখন টিভিতে খেলা দেখতাম তখনকার চেয়ে বিশ্বাসটা এখন অনেক বেশি, লড়াই করার এবং জেতার।”-বিডিনিউজ