রুনির রেকর্ডের রাতে হাসল ম্যানইউ

আপডেট: নভেম্বর ২৫, ২০১৬, ১১:০৭ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
ফেনুর্দের কাছে হার মানেই ইউরোপা লিগ থেকে বিদায়- এমন শঙ্কা নিয়ে ওল্ড ট্রাফোর্ডে লড়াইয়ে নেমেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কিন্তু দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া হোসে মরিনহোর দলের কাছে পাত্তাই পেল না ডাচ ক্লাব। ফেনুর্দকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে টুর্নামেন্টে ‘জীবন্ত’ থাকল ইউনাইটেড। নকআউট পর্বে যেতে মাত্র এক পয়েন্টই যথেষ্ঠ এমন সমীকরণ মাথায় রেখে আগামী মাসে জরিয়া লুহানস্কের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচ খেলবে রেড ডেভিলরা।
বৃহস্পতিবার ম্যানইউকে প্রথম আনন্দের উপলক্ষ এনে দেন ওয়েন রুনি। ইউরোপীয় মঞ্চে হ্যাটট্রিকে অভিষেকের ১২ বছর পর এবং আন্তর্জাতিক ফুটবলে ‘এখনও ফুরিয়ে যাননি’ বলার পাঁচদিন পর তিনি হয়ে গেলেন ইউরোপের প্রতিযোগিতায় ম্যানইউর সর্বোচ্চ গোলদাতা। ওল্ড ট্রাফোর্ডে এদিন ৩৫ মিনিটে জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের পাস থেকে ইউরোপীয় লড়াইয়ে নিজের ৩৯তম গোল করলেন রুনি এবং পেছনে ফেললেন রুড ফন নিস্টলরয়ের ৩৮ গোলের অর্জনকে। আরেকটি কীর্তি গড়ার থেকে এক পা দূরে ইংলিশ এই ফরোয়ার্ড, ইউনাইটেডে সর্বকালের শীর্ষ গোলদাতা স্যার ববি চার্লটনের (২৪৯) থেকে মাত্র এক গোল পেছনে তিনি। তার গোলেই প্রথমার্ধ ১-০ তে শেষ করে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে এসে হুয়ান মাতাকে দ্বিতীয় গোল বানিয়ে দেন রুনি। তৃতীয় গোলটি আসে ৭৫ মিনিটে, ইব্রাহিমোভিচের প্রচেষ্টা ঠেকাতে গিয়ে ব্রাড জোন্স আত্মঘাতী গোল করেন। ইনজুরি সময়ের চতুর্থ মিনিটে হেসে লিনগার্দ চার নম্বর গোলটি করেন।
‘এ’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে ফেনারবাশ ২-০ গোলে জরিয়াকে হারিয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে, ম্যানইউ তাদের চেয়ে এক পয়েন্ট পেছনে।
দুই গোলে এগিয়ে থেকেও হাপোয়েল বি’য়ারের কাছে ৩-২ গোলে হেরে ইউরোপা লিগ থেকে ছিটকে গেছে ইন্টার মিলান। ৫ ম্যাচে চতুর্থ হারে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে ইতালিয়ানরা। ‘কে’ গ্রুপ থেকে স্পার্তা প্রাগ নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে ১-০ গোলে সাউদাম্পটনকে হারিয়ে। ভিক্টোরিয়া প্লজেনকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে ‘ই’ গ্রুপের শীর্ষস্থান ও নকআউট পর্বের টিকিট পেয়েছে ইতালিয়ান জায়ান্ট এএস রোমা।-বাংলা ট্রিবিউন