রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী

আপডেট: জুন ২৯, ২০২৪, ১০:০২ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে (রুয়েট) স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা জরুরী। শনিবার (২৯ জুন) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল রুমে এপিএ সংক্রান্ত নৈতিকতা কমিটি এবং ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি এ্যাসুরেন্স সেলের (আইকিউএসি) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশগ্রহণে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম এই আহবান জানান।

ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আরিফ আহম্মদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আইকিউএসি এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক। অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন- তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. রবিউল ইসলাম, পুরকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. কামরুজ্জামান রিপন, ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইপিই) বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. মোশাররফ হোসেন, রসায়ন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মোঃ আল আমিন আল আজাদ উল ইসলাম, তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. সেলিম হোসেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মো. রবিউল ইসলাম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তৌহিদ আরিফ খান চৌধুরী, চীফ মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মোকসেদ আলী। সভাটি সঞ্চালনা করেন অর্থ ও হিসাব শাখার অতিরিক্ত পরিচালক এবং এপিএ সংক্রান্ত নৈতিকতা কমিটির ফোকাল পয়েন্ট শেখ মো. ফয়ছাল আরেফিন।

সভায় বিভিন্ন অনুষদের ডীন, সকল পরিচালক, বিভাগীয় প্রধান, দপ্তর ও শাখা প্রধানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও এপিএ সংক্রান্ত বিভিন্ন কমিটির কর্মকর্তাবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।