রূপগঞ্জের জয়ে উজ্জ্বল মুশফিক-মাশরাফি

আপডেট: এপ্রিল ১৩, ২০১৭, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



এবারের দলবদলের অন্যতম আলোচিত ঘটনা দুজনের এক দলে খেলা। লিগের প্রথম দিনে দলের জয়ের নায়কও সেই দুজন। ব্যাটে-বলে অবদান রাখলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। দারুণ অপরাজিত ইনিংসে দলকে জেতালেন মুশফিকুর রহিম।
প্রিমিয়ার লিগের প্রথম দিন বিকেএসপিতে মুশফিক-মাশরাফির লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ৪ উইকেটে হারিয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে।
টানা ৮ ওভারের স্পেলে ২ উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি। আরেক অভিজ্ঞ পেসার মোহাম্মদ শরীফ নিয়েছেন ৩ উইকেট। ব্রাদার্স থমকে যায় ২০৬ রানে।
রূপগঞ্জের রান তাড়া মসৃণ ছিল না। তবে এক প্রান্ত আগলে দলের জয় সঙ্গে নিয়ে ফেরেন মুশফিক। মাশরাফির অনুরোধেই রূপগঞ্জকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মুশফিক। সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে অপরাজিত ৭৫ রানে। সকালে বল হাতে ব্রাদার্সকে জোড়া ধাক্কা দেন শরীফ। জুনায়েদ সিদ্দিক ফিরে যান রান আউটে।
রান বাড়াতে চারে নামা পেসার নূর আল সাদ্দাম মাশরাফির প্রথম ওভারে মারেন ছক্কা। পরে সাদ্দামকে ফিরিয়ে দেন মাশরাফিই। বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক পরে ফেরান অলক কাপালীকে।
মাঝে ব্রাদার্সের ভারতীয় অলরাউন্ডার অভিষেক নায়ারকে ফেরান আসিফ। ৯১ রানে ব্রাদার্স হারায় ৬ উইকেট।
সেখান থেকে ব্রাদার্সকে টেনে তোলেন মায়শুকুর রহমান। ৯০ বলে করেন ৬৫ রান। শেষ দিকে ধীমান ঘেষের ৩০ রানে ব্রাদার্স ছাড়ায় দ্ইুশ।
রূপগঞ্জের দুই ওপেনার বা মিডল অর্ডারে অভিজ্ঞ নাঈম, – সবাই আউট হয়েছেন থিতু হয়েও। ১৪১ রানে হারায় তারা ৫ উইকেট। তখন মুশফিককে সঙ্গ দেওয়ার মতো নেই বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান। মাশরাফি তখন ব্যাট হতে খানিকটা সঙ্গ দেন মুশফিককে।
১৭ রানে মাশরাফি ফেরেন রান আউটে। মোশররফ হোসেনকে নিয়ে বাকিটা পথ পাড়ি দেন মুশফিক। ১০৩ বলে অপরাজিত ৭৫ রানের ইনিংসে ম্যাচ সেরা মুশফিকই।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ব্রাদার্স: ৫০ ওভারে ২০৬/৯ (মিরাজুল ০, জুনায়েদ ২১, মিজানুর ১৫, সাদ্দাম ১৮, অভিষেক ৬, মায়শুকুর ৬৫, অলক ১২, কামরুল ২৯, ধীমান ৩০*, ইফতেখার ২, নিহাদুজ্জামান ২*; শরীফ ৩/২৫, সাব্বির ০/৪১, মোশাররফ ১/৪২, মাশরাফি ২/২৮, আসিফ ২/৩১, মাহমুদুল ০/২১, নাঈম ০/১৬)।
রূপগঞ্জ: ৪৬.১ ওভারে ২০৭/৬ (সায়েম ১৯, হাসানুজ্জামান ৩১, মাহমুদুল ১, মুশফিক ৭৫*, নাঈম ২৫, ইয়াসির ৫, মাশরাফি ১৭, মোশাররফ ১৯*; মিরাজুল ০/২৬, সাদ্দাম ০/২২, নিহাদুজ্জামান ২/৩৪, কামরুল ০/৪৪, ইফতেখার ১/২৭, অলক ০/২৭, অভিষেক ২/২২।
ফল: লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ৪ উইকেটে জয়ী
ম্যান অব দা ম্যাচ: মুশফিকুর রহিম