রূপপুর প্রকল্পের তথ্যকেন্দ্রে ‘কার্বনমুক্ত ভবিষ্যত’ বিষয়ে রসাটমের কর্মসূচী

আপডেট: জুন ১৩, ২০২৪, ২:৫০ অপরাহ্ণ


ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি :


পাবনার ঈশ্বরদীতে ‘কার্বনমুক্ত ভবিষ্যত’ বিষয়ে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্পের তথ্য কেন্দ্রে আয়োজিত ৪ দিন ব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী বুধবার (১২ জুন) শেষ হয়েছে। বিশ্ব পরিবেশ দিবসকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের সহযোগিতায় রাশিয়ার রাস্ট্রীয় পরমাণু শক্তি সংস্থা রসাটম ঈশ্বরদীর ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় দেড় হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে চার দিনব্যাপী কর্মসূচীতে পাবনা ও ঈশ্বরদী অঞ্চলে বিভিন্ন প্রতিযোগীতা মূলক কর্মসূচীর আয়োজন করে।

টেকসই পরিবেশ ও সামাজিক সম্পৃক্ততার বিষয়ে রসাটম তাদের অঙ্গীকার তুলে ধরে ‘কার্বনমুক্ত ভবিষ্যৎ’ বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্য নিয়ে নির্মানাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের পার্শবর্তী অঞ্চলগুলোতে এসব কর্মসূচী পালন করে।

এতমস্ত্রয়এক্সপোর্টের কম্যুনিকেশন্স বিভাগ প্রধান নিনা দেমেন্তসোভা তার মন্তব্যে বলেন, “পরিবেশ বিষয়টি এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের জেনারেল কন্ট্রাকটর হিসেবে এই বিষয়টি নিয়ে কাজ করাটা আমাদের দায়িত্ব বলে মনে করি। জনগনের সক্রিয় অংশগ্রহণ আমাদেরকে অনুপ্রানিত করছে”।

কর্মসূচীর অংশ হিসেবে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কনশাস কনজামশন এবং রূপপুর এনপিপি’র ইকোলজির বৈশিষ্ট্যগুলো নিয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়। শীর্ষস্থানীয় পরিবেশবিদরা সেমিনারে বক্তব্য রাখেন। পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারম্যান ডঃ মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম বলেন, “রসাটমের সঙ্গে যৌথভাবে আয়োজিত এই সেমিনারের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীদের মাঝে পরিবেশ এবং পারমাণবিক শক্তি নিয়ে ভুল ধারণাগুলো অপসারিত হয়েছে।

ঈশ্বরদী পৌরসভা কার্যালয়ে স্থাপিত পারমাণবিক তথ্যকেন্দ্রে স্থানীয় স্কুল শিক্ষার্থীদের নিয়ে বর্জ্য প্লাস্টিক বোতল ও খবরের কাগজ থেকে কীভাবে প্রয়োজনীয় ও সুন্দর সামগ্রী তৈরি করা সম্ভব, তা সম্পর্কে শিক্ষার্থীরা হাতেকলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারম্যান ডঃ মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম কনশাস কনজামশন বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

পরে পরিবেশ বিষয়ক বিশেষ নাটকের মাধ্যমে পরিবেশ সুরক্ষার গুরুত্ব এবং এনার্জীর পরিচ্ছন্ন উৎস হিসেবে পারমাণবিক প্রযুক্তির গুরুত্ব তুলে ধরা হয়। এ আয়োজনের অংশ হিসেবে ঈশ্বরদী পৌরসভা প্রাঙ্গনে স্থানীয় জনগনের জন্য পরিবেশবান্ধব সামগ্রীর একটি মেলারও আয়েজন করে রসাটম।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version