রেল লাইনের কাঠের স্লিপারে বাঁশের ফালি

আপডেট: এপ্রিল ৬, ২০১৭, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রেল লাইনে ব্যবহার করা হচ্ছে কাঠের ফালি । ছবিটি নড়রীর বুধপাড়া এলাকা থেকে তোলা – সোনার দেশ

রেললাইনের কাঠের স্লিপার নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সেগুলো রক্ষায় ব্যবহার করা হচ্ছে বাঁশ ও কাঠের ফালি। লাইন থেকে স্লিপার যাতে স্থানচ্যুত না হতে পারে সেজন্য সেগুলোর ওপর পেরেক ঠুকে ফালি করা বাঁশ ও কাঠ স্থাপন করা হয়েছে। এ অবস্থায় যে কোনো সময় বড় ধরনের ট্রেন দুর্ঘটনায় যাত্রী হতাহতের আশঙ্কা রয়েছে।
সরজমিনে দেখা গেছে, গতকাল বুধবার বিকেল চারটায় নগরীর বুধপাড়া এলাকার ৫৮ নম্বর ব্রিজে রেললাইনের এ অবস্থা। ব্রিজটিতে মোট কাঠের স্লিপার রয়েছে ২৪টি। এর মধ্যে ১৪টি স্লিপারে বাঁশ ও কাঠের ফালি পেরেক দিয়ে স্থাপন করা হয়েছে। আর বাকি ১০টি স্লিপার ফাঁকা অবস্থায় রয়েছে। এ অবস্থায় ঝুঁকিতে রাজশাহী থেকে বিভিন্ন রুটে ছেড়ে যাচ্ছে ট্রেনগুলো।
গত বছরের জুলাই মাসের তিন তারিখে এই ব্রিজের উপরে রেললাইনের নিচে স্লিপার সরে যাওয়ার কারণে লাইন ভেঙে যায়। এরপর বেশ কয়েক ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। এসময় রাজশাহী থেকে বিভিন্ন রুটের চারটি ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিলো। পরে সেই স্থানে আবার লাইন কেটে স্লিপার জোড়া দিয়ে পুনরায় ট্রেন চলাচল গুরু হয়। এর কিছ দিন পরে আবার সেই স্থানের রেললাইন কেটে বাদ দিয়ে আবার নতুন করে লাগানো হয়।
নগরীর বুধপাড়া এলাকার যুবলীগ নেতা মনি মিঞা বলেন, গতকাল বেলা ১১টার দিকে রেলের দুইজন লোক বাঁশ ও কাঠের ফালি নিয়ে আসেন। যেসব স্লিপার নষ্ট হয়েছে সেগুলোতে পেরেক দিয়ে বাঁশের ফালি লাগিয়ে দেন। এ অবস্থায় যেকোনো সময় বড় ধরনের রেল দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছি আমরা। এর ফলে বহু যাত্রী হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে।
এ ব্যাপারে রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (সেতু) শাহজাহান আলী বলেন, আমি (পরশুদিন) সোমবার ট্রলিতে ব্রিজ ঘুড়ে দেখেছি। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে স্লিপারগুলো পরিবর্তনের জন্য। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ব্রিজের সব স্লিপারগুলো পরিবর্তন করা হবে। আর বর্তমানে যেটা করা হয়েছে, তা সাময়িক। রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক রাখার জন্য সাময়িকভাবে এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ