লালপুরে ইমো হ্যাকিং চক্রের ৩ প্রতারক গ্রেপ্তার

আপডেট: মে ৩১, ২০২২, ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি:


নাটোরের লালপুরে ইমো হ্যাকিং চক্রের ৩ প্রতারক গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ মে) ভোরে উপজেলার মহারাজপুর গ্রামস্থ পাকার মোড় এলাকায় অভিমান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার বিলমারিয়া ইউনিয়নের মহারাজপুর গ্রামস্থ পাকার মোড় এলাকায় কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেন এবং কোম্পানী উপঅধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ইমো হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় ৫টি মোবাইল সেট, সিমকার্ড, মোটর সাইকেলসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মোহরকয়ারশাহাবুল ইসলামের ছেলে মো. মেহেদী হাসান রনি (২৫), মোহরকয়া ভাঙ্গাপাড়ার মো. ইয়াছিন আলীর ছেলে মো. রবিউল ইসলাম (২২) ও নাগশোষার মো. সাজদার রহমানের ছেলে মো. আরিফুল ইসলাম (৩০)।

গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ইমো ব্যবহারকারীদের ইমো হ্যাক করে ইমো সফ্টওয়্যারে অবৈধ প্রবেশ এবং মেয়ে ও পুরুষের ছদ্মবেশ ধারণ করে পরিচয় গোপনপূর্বক বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও প্রদর্শন, ইমো সেক্স এবং প্রতারনার মাধ্যমে কৌশলে ভুক্তভোগীদের পরিচিতজনদের নিকট হতে প্রতারণাপূর্বক মোবাইল ফিন্যান্সিং সার্ভিস (বিকাশ) এর মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেন।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহা. মোনোয়ারুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় লালপুর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ এর ২০/২৪/৩৪/৩৫ ধারায় মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।