লিবিয়ায় বাংলাদেশি অপহরণ || জড়িত সন্দেহে সিংড়ায় নারীসহ আটক ৩

আপডেট: অক্টোবর ২৮, ২০১৬, ১১:৪০ অপরাহ্ণ

নাটোর অফিস
লিবিয়াতে ফিরোজ আহমেদ নামে এক বাংলাদেশিকে অপহরণ করে মোবাইল ফোনে তিন লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করেছে অপহরণকারীরা। এই অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নাটোরের সিংড়া থেকে এক নারীসহ তিনজনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। অপহৃত ফিরোজ আহমেদ পাবনার আমিনপুর এলাকার বাসিন্দা।
নাটোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল হাই জানান, পাবনার আমিনপুর এলাকার বাসিন্দা ফিরোজ আহমেদ দীর্ঘদিন ধরেই লিবিয়াতে কর্মরত রয়েছেন। সেখানে অপর এক বাংলাদেশী নাটোরের সিংড়া উপজেলার কলম গ্রামের জিল্লুর রহমানও কর্মরত রয়েছে। গত চারদিন আগে ফিরোজ আহমেদকে কে বা কারা লিবিয়া থেকে অপহরণ করে। পরে অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনে অপহৃতের পরিবারের কাছে তিন লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করে। তারা জিল্লুর রহমানের স্ত্রী সিংড়ার নাদীরা বেগমের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মুক্তিপণের টাকা জমা দিতে বলে। অপহৃতের পরিবার ব্যাংকের মাধ্যমে এক লাখ টাকা পরিশোধ করেন। পরে তারা পাবনার আমিনপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নাটোরের ডিবি পুলিশের একটি দল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিংড়া উপজেলার কলম গ্রাম থেকে এক নারীসহ তিনজনকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন, জিল্লুর রহমানের স্ত্রী নাদীরা বেগম, আবু তাহেরের ছেলে আবদুল জব্বার ও আবদুল জব্বারের ছেলে কামরুল ইসলাম। বর্তমানে আটককৃতদের সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।