লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনায় রাবিতে প্রতিবাদ

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১, ৯:৩৬ অপরাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক:


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাবন্দী লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রগতিশীল শিক্ষকবৃন্দ। গতকাল শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্ত্বরে মুখে কালো কাপড় বেঁধে এই প্রতিবাদ জানান তাঁরা।
কর্মসূচিতে বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সৌভিক রেজা বলেন, ‘এসব হত্যাকান্ডের জন্য দায়ী রাষ্ট্র। রাষ্ট্র যাতে জবাবদিহিতা ছাড়াই এমন হত্যাকান্ড না চালাতে পারে সে বিষয়ে সবাইকে স্বোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। এবং রাষ্ট্রের যেকোনো এমন বিষয়ে আমরা লাগাতারভাবে আমাদের অবস্থান জানান দেবো। আমরা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মানি না।’
এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সালেহ্ হাসান নকীব, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক আবদুল্লাহ আল মামুন এবং সহকারী অধ্যাপক কাজী মামুন হায়দার, নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক বখতিয়ার আহমেদ, ফোকলোর বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম কনক, মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক মাহফুজ্জামান কাদেরী, নদী গবেষক ও লেখক মাহমুদ সিদ্দিকী, রাকসু আন্দোলন মঞ্চের সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তর এবং ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ রাবি শাখা সাংগঠনিক সম্পাদক আমানউল্লাহ খান।
এর আগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কারাবন্দী লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান। তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে ছিলেন।
জানা যায়, মুশতাক আহমেদ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে কারাগারের ভেতর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে প্রথমে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ