শহিদ জিয়াবুলের শাহাদত বার্ষিকী পালিত

আপডেট: নভেম্বর ২৮, ২০১৬, ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


গতকাল সোমবার ছিল সামরিক স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে শহিদ জিয়াবুল হোসেনের ২৬তম শাহাদত বার্ষিকী। ১৯৯০ সালের ২৮ নভেম্বর শহিদ জিয়াবুল হোসেন সামরিক স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে সামরিক জান্তার গুন্ডাবাহিনীর গুলিতে মাথায় গুলিবিদ্ধ হন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটদিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। শহিদ জিয়াবুল নগরীর মুসলিম হাই স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র থাকা অবস্থাতেই এরশাদবিরোধী আন্দোলনে সম্পৃক্ত হন। তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ছাত্র আন্দোলনে আজো সকলে তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।
শহিদ জিয়াবুলের ২৬তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সকালে রাজশাহী কলেজে নগর ছাত্রলীগ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল, কালোব্যাচ ধারণ, শহিদ জিয়াবুলে হোসেনের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, শোক র‌্যালি, শহীদের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন ও দোয়া মাহফিল।
নগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিবের পরিচালনায় কর্মসূচিতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহসভাপতি মাহফুজুর রহমান লোটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শহিদ জিয়াবুল হোসেনের ভাই মোস্তাক হোসেন, উপপ্রচার সম্পাদক মীর ইস্তিয়াক আহমেদ লিমন, সদস্য আহ্সানুল হক পিন্টুসহ নগর আ’লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীবৃন্দ।
এসময় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল মোমিন, নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান বাবু, শাফিকুজ্জামান শফিকসহ ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীবৃন্দ এ্বং নগর ছাত্রলীগ ও এর অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি ইউনিটের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।