শহিদ নজমুল হক বিদ্যালয়ে ‘স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স’র উদ্বোধন

আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২২, ৯:৫৬ অপরাহ্ণ


সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


শহিদ নজমুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স’ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে এ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনি।

ক্লাইমেট ব্রিজ ফান্ড (সিবিএফ) ও ওয়াটারএইড বাংলাদেশ এর অর্থায়নে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সহযোগিতায় ‘স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স’ নির্মাণ কাজের বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ভিলেজ এডুকেশন রিসোর্স সেন্টার (ভার্ক)।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, পরিচ্ছন্ন, স্বাস্থ্যকর, সবুজ নগরী রাজশাহী মহানগরী। সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন পরিকল্পিতভাবে এ নগরীর উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। প্রকল্পের শুরুতে নগরীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহে স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করার লক্ষ্যে প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেছেন সিটি মেয়র।

এজন্য প্রকল্পের পক্ষ থেকে মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়। রাজশাহী মহানগরীতে স্কুল পর্যায়ে স্যানিটেশন কার্যক্রম সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে ওয়াটারএইড বাংলাদেশ। ‘স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স’ এ প্রকল্পের আওতায় শহিদ নজমুল হক স্কুলে নির্মিত কমপ্লেক্সে ১২টি টয়লেট থাকবে। সেখানে মেয়েদের ঋতুকালীন মাসিক ব্যবস্থাপনায় দুইটি পৃথক টয়লেটের ব্যবস্থা থাকবে। সেখানে স্যানিটারী প্যাড, স্যানিটাইজার, টিস্যু রাখার পৃথক ব্যবস্থা থাকবে।

পোশাক শুকানোর বিশেষ ব্যবস্থা রাখতে এ কমপ্লেক্সে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হবে। মেয়েদের কমফোর্ট ফ্রেশ রুমের ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়াও নিরাপদ সুপেয় পানির ব্যবস্থাপনায় ড্রিংকিং ওয়াটার স্টেশন এবং দুইটি হ্যান্ড ওয়াশিং স্টেশন স্থাপন করা হবে। শহিদ নজমুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ‘স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স’ নির্মাণ কাজে সর্বমোট ব্যয় হবে ৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

শহিদ নজমুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্বাস উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ওয়াহেদুন্নবী অনু, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের চীফ কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার মোঃ আজিজুর রহমান, ওয়াটারএইড বাংলাদেশ জোনাল কো-অর্ডিনেটর মো. রেজাউল হুদা মিলন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ভার্কের কম্পোজিট অ্যাকশন ফর ক্লাইমেট মাইগ্রেন্ট ইনম আরবান স্লাম প্রজেক্ট ম্যানেজার কামরুজ্জামান সরকার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ে শিক্ষক মাওলানা আব্দুস সোবহান।

এ সময় বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ, সিনিয়র শিক্ষক অমল কুমার ঘোষ, বাবুল আখতার, রাসিকের সহকারী জনসংযোগ কর্মকর্তা রকিবুল হক তুহিনসহ বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ও বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।