শাবি ভিসিকে সরানো হবে কিনা আচার্যের বিষয়: শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট: জানুয়ারি ২৭, ২০২২, ৯:৪১ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উদ্ভূত পরিস্থিতিতে উপাচার্যকে (ভিসি) সরানো হবে কিনা তা আচার্যের বিষয় বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকালে বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি এ কথা জানান।
শিক্ষামন্ত্রী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সমস্যার সমাধান করতে চাই সেটা একটি বিষয়। আর সরানো হবে কিনা সেটি চ্যান্সেলরের বিষয়। আমরা সেটা নিয়ে বলার দিকে যাইনি। ভিসি সরানো সমস্যার সমাধান নয়। শিক্ষার্থীদের যে সমস্যা রয়েছে সেগুলো সমাধান করার বিষয়।’
বিশ্ববিদ্যালয়টির বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অসদাচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগে গত ১৩ জানুয়ারি আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এই আন্দোলনে হামলার ঘটনা ঘটলে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে। পরে পুলিশ শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা করে। ঘটনার সময় শটগানের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেড ব্যবহারও করা হয়। এরপর উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ চেয়ে এক দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের একটি অংশ অনশন শুরু করেন।
অনশনের সাত দিনের মাথায় বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) শিক্ষাবিদ ও লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল শিক্ষার্থীদের পানি পান করিয়ে অনশন ভাঙান।
সকালে শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙার পর সন্ধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, একজন উপাচার্য চলে গেলে তো আরেকজন আসবেন। কিন্তু সমস্যাই যদি থেকে যায় তাহলে তো কোনও লাভ হলো না।
মামলার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আন্দোলনের সময় কিছু মামলা হয়েছে। মামলা থাকবে না। কোনও অসুবিধা নেই। সমস্যা যখন সমাধান হয়ে যাচ্ছে, তাদের সঙ্গে (শিক্ষার্থীদের) কথা বলে আশা করি বিষয়গুলো নিষ্পত্তি হয়ে যাবে। কোনও সমস্যা থাকবে না। শিক্ষার্থীদের যাতে কোনও ধরনের সমস্যা না হয় আমরা সেটা নিশ্চিত করবো।’
ডা. দীপু মনি আরও বলেন, সমস্যাগুলো শুধু শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় নয়, অন্য বিশ্ববিদ্যালয়েও আছে। হলগুলো নিয়ে সমস্যা, খাবার নিয়ে সমস্যা, আমরা সে সমস্যার সমাধান করতে চাই।- বাংলা ট্রিবিউন