শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে রাবি প্রশাসনের অভিযোগ দায়ের

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৬, ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকি কার্যক্রম নিয়ে বিভ্রান্তির তথ্য ছাড়ানো ও কুৎসা রটানোর অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মু. এন্তাজুল হক নগরীর মতিহার থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।
অভিযুক্ত কাজী জাহিদুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। তিনি সম্প্রতি (কধুর ঔধযরফ) নামের তার ফেসবুক আইডি থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রসাশনের বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে স্ট্যাটাস দেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজিটাইজেশনের কার্যক্রম বিভিন্ন দুর্র্নীতি ও অনিয়মের কারণে ব্যাহত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের একটি পদের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়ম হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। তিনি অভিযোগ করেছেন, নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় নির্ধারিত প্রার্থীদের অংশগ্রহণের সুবিধার জন্য অনিয়ম করা হয়েছে। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই পদে নিয়োগের কোনো মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় নি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান বলেন, সম্প্রতি কাজী জাহিদুর রহমান ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি কার্যক্রম নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রদান করেছেন। সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চিঠি দিয়ে তাকে এ বিষয়ে তার বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলা হয়। তিনি কোন সদুত্তর না দিতে পারায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করেছে।
নগরীর মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, ‘ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এন্তাজুল হক একটি অভিযোগ দিয়েছেন। এই অভিযোগের মামলা রেকর্ডের প্রক্রিয়া চলছে।’