শিক্ষার্থীরা উন্নত জাতি ও দেশ গড়ার কারিগর : লিটন

আপডেট: জুলাই ১৮, ২০১৭, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


প্রাথমিক শিক্ষাক্রম ও শিক্ষণ বিজ্ঞান বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, আ’লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন-সোনার দেশ

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বিদ্যালয় থেকে শিশুরা শিক্ষা জীবন শুরু করে। ক্রমান্বয়ে উন্নত জাতি ও দেশ গড়ার কারিগর হয়ে ওঠে। শিশুরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা লাভ করে। জাতি তাদের কাছে ঋণী। কিন্ডারগার্টেন অ্যান্ড স্কুলের শিক্ষকরা অল্প বেতনে কষ্ট করে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে যেভাবে শিক্ষার আলো বিতরণ করছেন তার জন্য আমরা সবাই তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।
গতকাল সোমবার বেলা ১১টায় নগরীর মনিবাজার নানকিং দরবার হলে রাজশাহী কিন্ডারগার্টেন অ্যান্ড স্কুল অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত প্রাথমিক শিক্ষাক্রম ও শিক্ষণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন
সাবেক মেয়র লিটন বলেন, শিক্ষকরা যেন বেতন কাঠামোর কষ্ট থেকে মুক্তি পায় এর জন্য প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর নিকট এই দূরাবস্থার কথা তুলে ধরবো। আমার বাবা শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামান ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের অধিনায়কদের অন্যতম। তিনি রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছিলেন। আমি তারই সন্তান ২০০৮ সালে সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হয়ে রাজশাহীবাসীকে একটি ক্লিন ও দুষণমুক্ত নগরী উপহার দিয়েছিলাম। জানিনা কী কারণে রাজশাহীর মানুষ ২০১৩ সালের নির্বাচনে আমাকে সরিয়ে দিয়ে রাজশাহীর উন্নয়নকে সাড়ে ৪ বছর পিছিয়ে দিলো। এবার রাজশাহীর মানুষের ঘুরে দাঁড়াবার পালা। সেটাই রাজশাহীর মানুষকে চিন্তা করতে হবে।
রাজশাহী কিন্ডারগার্টেন অ্যান্ড স্কুল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি গোলাম সারওয়ার স্বপনের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাসিট্রজের সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি, রাজশাহী পিটিআ্ই-এর সুপারিনটেডেন্ট মুজাহিদুল ইসলাম, মহানগর আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টু ও রাসিকের ৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলার কামরুজ্জামান কামরু।
অনুষ্ঠানে নগরীর কিন্ডারগার্টেন স্কুলের পিটিআই-এ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সাড়ে ৩শ’ শিক্ষক-শিক্ষিকার মাঝে সনদপত্র বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন অ্যাসোসিয়েশনের কর্মী শিমুল আহমেদ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ