শিবগঞ্জে ককটেল তৈরির কারিগর বিস্ফোরক ও দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার

আপডেট: ডিসেম্বর ৬, ২০২৩, ৮:২৬ অপরাহ্ণ


চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও শিবগঞ্জ প্রতিনিধি:


চাঁপাইনবাবগঞ্জে ককটেল তৈরির আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করে ৫টি তাজা ককটেল, দেশীয় অস্ত্র ও তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জামসহ ককটেল তৈরির কারিগরকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা বাজারে ককটেল তৈরির গোপন আস্তানায় মঙ্গলবার (০৫ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে অভিযান পরিচালনা করে কারিগর তরিকুল ইসলামকে আটক করা হয়।

ককটেল তৈরির গোপন আস্তানা থেকে ৫টি তাজা ককটেল ছাড়াও ১১টি রামদা, ২টি কুড়াল, ৫টি চাকু, ককটেল তৈরিতে ব্যবহৃত জর্দ্দার খালি ১৭টি কৌটা, ২৫০ গ্রাম ভাঙ্গা ব্লেডের অংশ, ৪০ গ্রাম বিস্ফোরক ও দুটি কসটেপ উদ্ধার করা হয়। বুধবার (০৬ ডিসেম্বর) সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের বাসভবন, আওয়ামী লীগ কার্যালয়, নির্বাচন অফিস ও এমপি প্রার্থীর বাসভবন লক্ষ্য করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনার প্রেক্ষিতে গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে র‌্যাব। এরই প্রেক্ষিতে গোপন সংবাদের ভিক্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ককটেল তৈরির কারিগর তরিকুলকে আটক করা হয়। পরে আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করে এসব সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, ককটেল তৈরির গোপন আস্তানাটি সাইদুল ইসলাম ওরফে রানার বাড়িতে অবস্থিত। অভিযানে তাজা ককটেল ও ককটেল তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার হলেও সাইদুল ইসলাম ওরফে রানাকে আটক করা যায়নি। আটককৃত ককটেল তৈরির কারিগর তরিকুলকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সাইদুল ইসলাম ওরফে রানার বাড়িটি দীর্ঘদিন ধরে ককটেল তৈরীর গোপন আস্তানা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

আটককৃত কারিগর তরিকুল ইসলাম (২৮) শিবগঞ্জ উপজেলার মৃত ইয়াসিন আলীর ছেলে। এ ঘটনার সাথে জড়িত মূলহোতা সাইদুল ইসলাম ওরফে রানাকে আটকের জন্য র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানায় র‌্যাব।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ