শিবগঞ্জে কর্নেল আজাদের অকাল মৃত্যুতে শোকসভা

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


সিলেটে বিস্ফোরণে নিহত লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবুল কালাম আজাদ রাসেলের মৃত্যু উপলক্ষে শিবগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে জুম্মার মসজিদে নামাজ শেষে দোয়া শোকসভা ও  গায়েবে জানাজার আয়োজন করা হয়।
গতকাল শুক্রবার শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ও বিনোদপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন জুম্মা মসজিদে জুম্মার নামাজের পর বিশেষ মোনাজাত করা হয়। বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের মহিলা আসনের সদস্য শাহিদা আখতারের উদ্যোগে উপজেলার মনাকষা  ইউনিয়নের সাহাপাড়া দাখিল মাদ্রাসা মিলনায়তনে মাদ্রাসা সুপার মাওলানা আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের সংরক্ষিত আসনের সদস্য শাহিদা আকতার রেখা, এসডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাইনুর রহমান লাল্টু, বিনোদপুর কলেজের প্রভাষক সফিকুল ইসলাম, তারাপুর স্কুল এ্যান্ড কলেজের শিক্ষক তাইফুর রহমান, শিক্ষক এনাামূল হক প্রমূখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহিদা আকতার রেখা বলেন, জঙ্গি গোষ্ঠীর হামলায় দেশপ্রেমিক কর্ণেল আবুল কালাম আজাদের মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে আমাদের সচেতন হওয়ার সময় এসেছে। যে কোন মূল্য জঙ্গিদের দমন করে দেশ ও ধর্মকে রক্ষা করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা আব্দুর রহমান বলেন, কোন ব্যক্তি যদি জীবনে এবারও ইমানের সঙ্গে কালেমা পাঠ করে থাকেন, তবে তাকে কাফের বলা বা হত্যা করা কোরআন বা হাদিসের আলোকে স¤পূর্ণ অবৈধ।
তার ভাই নজরুল ইমলাম জানান, আবুল কালাম আজাদ খুব সহজ-সরল ও দানশীন ব্যক্তি ছিলেন। তার অন্তিম ইচ্ছে ছিল চাকরি শেষে গ্রামের বাড়ি সাহাপাড়ায় বসবাস করা এবং জনসেবামূলক কাজে নিজেকে নিয়েজিত করা।
একই দিন মাগরিবের পর সাহাপাড়া জামে মসজিদে মাওলানা আব্দুর রহমানের উদ্যোগে সহস্রাধিক লোকের সমন্বয়ে গায়েবে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ