শিবগঞ্জে ৪০ দিনের কর্মসূচির ৭২টি প্রকল্পের কাজ শেষের পথে

আপডেট: জুন ২১, ২০১৭, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ইজিপিপির দ্বিতীয় পর্যায়ের ৪০ দিনের কর্মসূচির ৭২টি প্রকল্পের কাজ ৯০ শতাংশ শেষ হয়েছে। তিন হাজার ৫৭৮ জন শ্রমিকের মাধ্যমে সফলভাবে এ কাজ শেষ হয়েছে বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরে শিবগঞ্জ উপজেলার ৭২টি প্রকল্পের কাজ গত ২৯ এপ্রিল উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নে একসঙ্গে কাজ শুরু হয়। শেষ হবে আগামী ২৪ জুন। ইতিমধ্যে ৯০ শতাংশ কাজ সফলভাবে সমাপ্ত হয়েছে। ৭২টি প্রকল্পের মধ্যে উজিরপুর, ঘোড়াপাখিয়া ও নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নে চারটি করে ও ১২ ইউনিয়নে পাঁচটি প্রকল্প ছিল। প্রকল্পগুলি গ্রাম পর্যায়ে রাস্তা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, খেলার মাঠ, হাট বাজার সংস্কারসহ বিভিন্ন ধরনের জনকল্যাণমূলক কাজ ররাদ্দ রয়েছে। প্রকল্পগুলি বাস্তবায়নের জন্য মোট তিন হাজার ৫৭৮ জন শ্রমিকের মধ্যে শাহাবাজপুর ইউনিয়নে ৩৬৫ জন, দাইপুখুরিয়া ইউনিয়নে ২৮৬ জন, মোবারকপুর ইউনিয়নে ২৬ জন, চককীর্তি ইউনিয়নে ২৪৪ জন, কানসাট ইউনিয়নে ২৪৩ জন, শ্যামপুর ইউনিয়নে ২৪৩ জন, বিনোদপুর ইউনিয়নে ২৪২ জন, মনাকষা ইউনিয়নে ৩৫৮ জন, দূর্লভপুর ইউনিয়নে ৩৬৮ জন উজিরপুর ইউনিয়নে ৮৩ জন, পাঁকা ইউনিয়নে ২৫২ জন, ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নে ১৩৬ জন, ধাইনগর ইউনিয়নের ২২৮ জন, নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নে ২১৯ জন ও ছত্রাজিতপুর ইউনিয়নে ১০৫ জন শ্রমিক কাজ কাজ করছে। তাদেরকে পারিশ্রমিক হিসাবে ১৭৫ টাকা করে শ্রমিকদের নিজ নিজ ব্যাংক হিসাব নম্বরের মাধ্যমে পরিশোধ করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার ইঞ্চিনিয়ার আরিফুল ইসলাম জানান, ৪০ দিনের কর্মসূচির কাজে সকল অনিয়ম ও দুর্নীতি রোধ কল্পে নিয়োগকৃত শ্রমিকদের স্ব- স্ব এলাকায় অবস্থিত ব্যাংকে হিসাব নম্বর খোলা হয়েছে। তাদের পারিশ্রমিক দেয়ার সময় শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও শিবগঞ্জ প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসারের ব্যাংকের যৌথ হিসাব নম্বর থেকে প্রতিটা শ্রমিকদের হিসাব নম্বরে দিন প্রতি ১৭৫ টাকা করে দেয়া হচ্ছে এবং ২৫ টাকা তাদের নামে সঞ্চয় রাখা হচ্ছে।
তিনি আরো জানান, ৪০ দিনের কর্মসূচির মাধ্যমে একদিকে কিছু অসহায় বেকারের বেকার সমস্যার সমাধান হচ্ছে, অন্যদিকে তেমনি গ্রামপর্যায়ে জনকল্যাণমূলক কাজ হচ্ছে। দিনপ্রতি মাত্র ২৫ টাকা করে জমা রাখার কারণে শ্রমিক শ্রেণির মধ্যে সঞ্চয়ী মনোভাব তৈরি হচ্ছে।