শিবগঞ্জ উপজেল প্রশাসন কার্যালয়ে সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সহসভাপতির উপর হামলার ঘটনায় মামলা

আপডেট: মার্চ ২৪, ২০২০, ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সোনামসজিদ বন্দরের অচল অবস্থার নিরসন কল্পে সংসদ সদস্যের নেতৃত্বে উপজেলার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের বৈঠক চলাকালে ছাত্রলীগ নামধারী একটি গ্রুপের হাতে সিএন্ডএফ এজেন্টের সহসভাপতি ইসমাইল হোসেন শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও আহত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটানায় শিবগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার বিকেলে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসে সোনামসজিদ স্থল বন্দরের অচল অবস্থা নিরসনে আলোচনা চলছিল। আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল আখতার,সহকারী কমিশনার সাইফুর রহমান, উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া, শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শামমুল আলম শাহ্সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। আলোচনা চলাকালে উপজেলা প্রশাসনের দ্বিতীয় তলায় ছাত্রলীগ নামধারী মেহেদী হাসান (২৫), আলিরাজ (২৫), জিহাদ আলি (২৪), আরিফসহ (২৫) ১৫/২০ জনের একটি দল বিভিন্ন ধরনের দেশিয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিেেয়শনের সহসভাপতি ইসমাইল হোসেনের উপর অতর্কিত হামলা করে। এসময় ইসমাইলের চিৎকারে বৈঠকের লোকজন তৃতীয় তলা থেকে নেমে আসলে তারা বিভিন্ন হুমকী দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলের লোকজন ইসমাইল হোসেনকে উদ্ধার করে চিকিৎসা করায়। এঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়েছে।
এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আলম শাহ্ বলেন, সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সহসভাপতি ইসমাইল হোসেনের উপর হামলার ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা হয়েছে। মামলা তদন্তধীন রয়েছে এবং আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল আখতারের সঙ্গে যোগযোগের জন্য বারবার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় যোগযোগ করা সম্ভব হয়নি।
তবে শিবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, স্থলবন্দর নিয়ে কোন আলোচনা হয়নি। আলোচনা হয়েছে আগামী ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস, ২৬মার্চ স্বাধীনতা দিবস ও বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে । হামলার ঘটনাটি তিনি অস্বীকার করে বলেন, কোন হামলা হয়নি। সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় ধাক্কা লাগা নিয়ে দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়েছে মাত্র।
এদিকে সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল বলেন, স্থলবন্দর নিয়ে আলোচনা বসা হয়েছিল কিন্তু ইসমাইল হোসেনের উপর হামলার কারণে আলোচনা স্থগিত হয়ে গেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ