শিবগঞ্জ পৌর এলাকায় ড্রেনেজ ব্যবস্থার অভাবে নিয়মিত জলাবদ্ধতা

আপডেট: আগস্ট ১৯, ২০১৭, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


শিবগঞ্জ পৌর এলাকায় ড্রেনেজ ব্যবস্থার অভাবে ভারী বৃষ্টি হলে এভাবেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে -সোনার দেশ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ প্রথম শ্রেণির পৌরসভা। তবুও ড্রেনেজ ব্যবস্থার তেমন কোন উন্নতি হয় নি। কয়েক দিনের ভারী বর্ষণে অধিকাংশ এলাকায় পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছে শিবগঞ্জ পৌর এলাকার বসবাসকারী বাসিন্দারা। বিশেষ করে টানা বর্ষার কারণে শিবগঞ্জ পৌর এলাকার শিশু শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে যাওয়া কষ্টকর হয়ে পড়েছে।
আর এই জলাবদ্ধতা থাকবে আরো প্রায় দুই মাস। জলবদ্ধতার কারণে দেখা দিয়েছে বিভিন্ন ধরনের পানিবাহিত রোগ। জরুরি ভিত্তিতে এই পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা না হলে পানিবাহিত রোগ ছাড়াও আরো বিভিন্ন ধরনের রোগ দেখা দেয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে পৌর স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছ থেকে জানা গেছে।
পানি নিষ্কাশনের জন্য পৌর এলাকায় নেই কোন ড্রেনের ব্যবস্থা। শিবগঞ্জ পৌর এলাকার কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে এমনই চিত্র। বিশেষ করে ছোট চকদৌলতপুর, বড় চকদৌলতপুর, গোয়ালপাড়া, হাজারীডাঙা, বাগানটুলী পৌর ভবনের আশপাশ এলাকা সেলিমাবাদ, শেখটোলা ও জালমাছমারী এলাকায় ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। বিপদে পড়েছে ওই সব এলাকার নি¤্ন আয়ের মানুষেরা।
এই জলবদ্ধতার বিষয়ে শিবগঞ্জ পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, পৌরসভার জন্মলগ্ন থেকে জলাবদ্ধতার কথা। তিনি পৌর এলাকাকে জলবদ্ধতা মুক্ত রাখতে কয়েকটি প্রকল্প ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া হয়েছে বলে জানান। প্রকল্পগুলোর বরাদ্দ এলে জরুরি ভিত্তিতে ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজ করা হবে।
পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, সাবেক মেয়র শামীম কবির হেলিমের দায়িত্বকালীন সময় বিরোধী দলীয় কিছু নেতাদের প্রতিবন্ধকতার কারণে এ জলবদ্ধতা দূর করার ব্যবস্থা করেও বরাদ্দ পাওয়া যায় নি। ফলে তৎকালীন সময় কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয় নি। একই কারণে বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসাবে বিজয়ী হলেও একই দলীয় নেতাদের প্রতিবন্ধকতার কারণে জলাবদ্ধতার দূর করার জন্য দাখিলকৃত প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে বিলম্ববিত হচ্ছে। তবে শিবগঞ্জ পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে সকল প্রতিবদ্ধকতা কাটিয়ে বরাদ্দ পাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তিনি জানান, জলাবদ্ধতা দূরীকরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করার অঙ্গিকার করে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। যেকোন মূল্যে জলবদ্ধতা দূর করে শিবগঞ্জ পৌরবাসীর উন্নয়ন করবেন।
পৌরসভার প্রকৌশল বিভাগে সাবেক প্রকৌশলী সাদিকুল ইসলাম জানান, পৌর এলাকার জলবদ্ধতা দূর করার জন্য দুইটি প্রকল্পের প্রয়োজন। একটি ছোট চকদৌলতপুর, বড় চকদৌলতপুর, সেলিমাবাদ জলাবদ্ধতার দূরীকরণের জন্য ড্রেনের ব্যবস্থা গ্রহণের করে পুটিমারি বিলে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা করণ, অন্যটি জালমাছমারী, গোয়ালপাড়া, শেখটোলা ও বাগানটুলী এলাকার পানি নিষ্কাশনের জন্য পাগলা নদী পর্যন্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থা প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে। এছাড়া পুরাতন ছোট ছোট ড্রেনেজ গুলোকে সম্প্রসারণ করলে অনেক স্থানের জলাবদ্ধতা কমতে পারে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ