শিবগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রারের সঙ্গে ও দলিল লেখকদের দ্বন্দ্ব ১০ দিন ধরে কলম বিরতিতে দুর্ভোগ চরমে

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২২, ১০:১৮ অপরাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:


চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিবগঞ্জ উপজেলায় সাব-রেজিস্ট্রার ও দলিল লেখকদের দ্বন্দ্বের জের ধরে গত ১০ দিন ধরে জমি রেজিষ্ট্রির কাজ বন্ধ রেখে কলম বিরতি অব্যাহত রয়েছে। এতে জমি রেজিস্ট্রি করতে আসা জনগণের দুর্ভোগ চরমে পৌছে। এরপর কর্তৃপক্ষের কোনো মাথাব্যথা নেই। এ ঘটনায় ২ পক্ষ একাধিকবার আলোচনায় বসলেও কোনো সুরাহা হয়নি। পাশাপাশি দুই পক্ষই এক অপরকে দায়ী করছেন।

অভিযোগে প্রকাশ শিবগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিষ্ট্রার মো. ইউসুফ আলী, অফিস সহকারী মো. আল-মামুন ও মোহরার মো. সেলিম রেজা সহ ৩ জনের অপসারনের দাবি করেছেন, শিবগঞ্জ দলিল লেখক নেতৃবৃন্দ গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে কলম বিরতি অব্যাহত রেখেছে। জমি রেজিস্ট্রি করতে আসা মো. সফিকুল ইসলাম জানান, সাব-রেজিস্ট্রার ও দলিল লেখকদের দ্বন্দ্বের কারণে আজকে ও জমি রেজিস্ট্রি করতে পারলাম না। আমাদের দুর্ভোগ দেখার কেউ নাই।

শিবগঞ্জ দলিল লেখক সমিতির সভাপতি মো. তোজাম্মেল হক জানান, শিবগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিষ্ট্রার,অফিস সহকারী ও মোহরার মো. সেলিম রেজা জমি রেজিষ্ট্রি করতে আসা দলিল লেখকদের সাথে অসাদাচরন, বহিস্কারের হুমকি এবং জমি রেজিষ্ট্রি করতে আসা মানুষ জনের কাছে দলিল লেখকদের খারাপ করার উদ্দেশ্যে অযাথা হয়রানি ও সময়ক্ষেপন করেন। এতে জমি ক্রয়-বিক্রয়ে বিরুপ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।

দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক জানান, অফিস সহকারী আল-মামুন ও মোহরার সেলিম রেজা হরহামেসায় রেজিষ্ট্রি করা কাজে ভুল ধরে অনৈতিকভাবে অতিরিক্ত টাকা দাবি করেন। ফলশ্রুতিতে জমি রেজিষ্ট্রি করা দলিল লেখকদের মানসিক ও অর্থনৈতিক চাপ সৃষ্টির কারণে গত ১০ দিন ধরে দলিল লেখকগন মানবেতর জীবন যাবন করছেন।

তিনি আরও জানান, সাব-রেজিষ্ট্রার, অফিস সহকারী ও মোহরার সেলিম রেজা কে অপসারণ করা না হলে কলম বিরতি অব্যাহত থাকবে। শিবগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিষ্ট্রার ইউসুফ আলী জানান, দলিল লেখকগন জমি রেজিষ্ট্রি করতে আসা জনসাধারনের কাছে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেন এবং আমার অফিসের কর্মচারীদের সাথে দূরব্যবহার এবং জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে সরকার কে রাজস্ব থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টা করেন।

সরকারি বিধি মোতাবেক এই অনিয়ম কঠোর হাস্তে দমন করতে গেলে দলিল লেখকগন সেন্ডিকেট করে দলিল লেখকগন কলম বিরতি চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ৯ জন দলিল লেখক কে অনৈতিক কাজের জন্য শোকাজ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব-আল-রাব্বি জানান, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি এবং উভয় পক্ষকে মৌখিক ভাবে আলোচনা করে অফিস কার্য পরিচালনা করার জন্য অনুরোধ করেছি।