‘শিল্পে বিদ্যুৎ সংযোগে দুর্বল অবস্থানে বাংলাদেশ’

আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০১৬, ১১:২৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক
বাংলাদেশে ব্যবসায়ীদের শিল্প স্থাপনে বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে গড়ে সময় লাগে ৪২৮ দিন। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎপ্রাপ্যতা সূচকে বিশ্বের ১৯০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৭। বিশ্বব্যাংক থেকে প্রকাশিত ‘ডুয়িং বিজনেস ২০১৭ শীর্ষক’ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।
ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিবেশ নিয়ে ১০টি মাপকাঠিতে তুলনা করে এই সূচক তৈরি করা হয়েছে। এই ১০টি সূচকের মধ্যে বিদ্যুৎপ্রাপ্যতার ক্ষেত্রে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের নাম। শুধু তাই নয়, ব্যবসা শুরু, ঋণের প্রাপ্যতা, ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষা ও কর পরিশোধের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান আগের চেয়ে খারাপ হয়েছে। তবে দু’টি সূচকে উন্নতি করতে পেরেছে বাংলাদেশ। এগুলো হলো সম্পত্তি নিবন্ধন ও দেউলিয়া হওয়া ব্যবসার উন্নয়ন সহজীকরণ ।
এ প্রসঙ্গে বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের প্রধান অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন বৃহস্পতিবার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সার্বিক সূচকে অগ্রগতি হলেও সংস্কারের গতি খুব ভালো বলা যাবে না।  ব্যবসা সংস্কার সূচকে প্রতিযোগী দেশগুলো যে হারে উন্নতি করছে, বাংলাদেশে সংস্কারের গতি সেই হারে হয়নি।’


প্রসঙ্গত, ২০০৩ সাল থেকে প্রতিবছর এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে বিশ্বব্যাংক। একজন উদ্যোক্তার জন্য একটি দেশে ব্যবসা করা কতটা কঠিন অথবা সহজ, সে বিষয়টিই মূলত এ প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে।
২০১৬ সালের ১ জুন পর্যন্ত হালনাগাদ তথ্য নিয়ে  তৈরি  করা  প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে-অবকাঠামো নির্মাণের অনুমতি, বিদ্যুতের প্রাপ্যতা, বৈদেশিক বাণিজ্য ও চুক্তি বাস্তবায়ন সূচকে কোনও উন্নতি করতে পারেনি বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশে ব্যবসা করার পরিবেশ আগের চেয়ে কিছুটা ভালো হয়েছে। সূচকে বাংলাদেশের স্কোরও সামান্য বেড়েছে। গত বছর বাংলাদেশের মোট ‘স্কোর’ ছিল ৪০.৬৮, এবার তা বেড়ে ৪০. ৮৪ হয়েছে।
অবশ্য এই স্কোর সামান্য বৃদ্ধি পেলেও বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ব্যবসা করার পরিবেশে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ এখনও অনেক পিছিয়ে রয়েছে। আফগানিস্তান ছাড়া বাকি সব দেশের নিচে বাংলাদেশের অবস্থান। সহজে ব্যবসা করা যায়, এমন ১৮৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ১৭৬, আগের বছর এ অবস্থান ছিল ১৭৮।
বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ব্যবসা করার পরিবেশের ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম। অষ্টম স্থানে রয়েছে আফগানিস্তান। দক্ষিণ এশিয়ায় ৭৩তম অবস্থান নিয়ে শীর্ষে আছে ভুটান। এ তালিকায় বাংলাদেশের চেয়ে ১০৩ ধাপ এগিয়ে আছে ভুটান। এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশের মধ্যে নেপাল ১০৭, শ্রীলঙ্কা ১১০, ভারত ১৩০, মালদ্বীপ ১৩৫, পাকিস্তান ১৪৪তম স্থানে রয়েছে।
প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বে ব্যবসা করার জন্য সবচেয়ে ভালো দেশ হচ্ছে নিউজিল্যান্ড। এরপর সিঙ্গাপুর। তৃতীয় নম্বরে রয়েছে ডেনমার্ক। সবচেয়ে খারাপ দুটি দেশ হলো ইরিত্রিয়া ও সোমালিয়া।-বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ