শিশুর জন্মনিবন্ধনে মিলছে উপহার

আপডেট: জানুয়ারি ২৭, ২০২২, ৩:২৩ অপরাহ্ণ

বড়াইগ্রামে (নাটোর) প্রতিনিধি :


নাটোরের বড়াইগ্রামে শিশু জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে নিবন্ধন করালেই মিলছে উপহার। উপজেলা ৭ ইউনিয়নে ইউএনও মারিয়াম খাতুন গিয়ে নিজ হাতে তুলে দিচ্ছেন সেই উপহার। ইতিমধ্যে চার শতাধিক শিশুকে নিবন্ধন পরবর্তী উপহার তুলে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নে গিয়ে দেখা গেছে, কর্তৃপক্ষের প্রচারাভিযানে আকৃষ্ট হয়ে শিশুসহ বাবা-মা জন্মনিবন্ধন করছেন। এসময় উদ্যোক্তা নীলা চৌধুরি বলেন, শিশু জন্মের ৪৫ দিনে মধ্যে জন্ম নিবন্ধন করালে ভোগান্তী পোহাতে হয় না। বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্র হলেই ফ্রি নিবন্ধন করা যায়।

ইউনিয়নের বাজিতপুর গ্রামে রোজী খাতুন বলেন, উপজেলা প্রশাসনের প্রচারাভিযানে উদ্বুদ্ধ হয়ে সন্তান জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যেই নিবন্ধন করেছি। নিবন্ধন শেষে জন্ম সনদ ও উপহার তুলে দিলেন ইউএনও স্যার।

জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন বিভাগের প্রধান ও উপজেলা আইসিটি অফিসার আব্দুর রহমান আনসারী বলেন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনে আমাদের প্রচারাভিযান চলমান রয়েছে। ৭ ইউনিয়নে চলতি মাসের ২৬ তারিখ পর্যন্ত ৪৫০টি জন্মনিবন্ধন সম্পন্ন করা হয়েছে। নিবন্ধিত প্রতিটি শিশুকে সনদসহ উপহার হিসেবে শীতের গরম কাপড় তুলে দেওয়া হয়েছে।

ইউএনও মারিয়াম খাতুন বলেন, সন্তান জন্মগ্রহন করার পর অনেক বাবা-মা তাঁদেরই সন্তানের জন্মনিবন্ধনে আগ্রহী হয় না। অথচ জন্মনিবন্ধন একটি শিশুর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জন্মনিবন্ধনের মধ্যই একটি শিশুর ভবিষ্যতের অনেক কিছু নির্ভর করে। তাই শিশুদের সঠিক সময়ে জন্মনিবন্ধনে উৎসাহিত করতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।