শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন শেখ রাসেলকে নয়, মানবতাকে হত্যা করেছে স্বাধীনতা বিরোধীরা

আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০২১, ১১:০৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :


বঙ্গবন্ধুর খুব আদরের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শুধু শিশু রাসেলকে হত্যা করা হয়নি, মানবতাকে হত্যা করেছে স্বাধীনতা বিরোধীরা। সেদিন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের স্বপ্নকে হত্যা করা হয়েছে। ঘাতকরা চেয়েছিল এ দেশে যেন আর কখনো মুক্তিযুদ্ধের কথা, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনার কথা উচ্চারণ করা না হয়। আমরা শিশু রাসেলকে হারিয়েছি। কিন্তু তার স্বপ্নকে হারিয়ে যেতে দেব না। আজকে শেখ রাসেলের জন্মদিবসে আমরা সেই শপথ নিই। বঙ্গবন্ধুপুত্র শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বক্তারা।

দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহীর বিভিন্ন সরকারি-বেসকারি-স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো- বঙ্গবন্ধু ও শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, স্মরণ সভা, কেক কাটা, আতশবাজি, রচনা প্রতিযোগিতা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, কবিতা আবৃত্তি, দেয়ালিকা প্রকাশ, বৃক্ষরোপণ, অসহায়-দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ, কোরআন খতম এবং বিশেষ দোয়া মাহফিল।

মহানগর আওয়ামী লীগ: দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কর্মসূচিসমূহ হলো, সোমবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১১টায় দলীয় কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে শেখ রাসেল এর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, বেলা সাড়ে ১১ টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। সভা সঞ্চালনা করেন, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, বদরুজ্জামান খায়ের, যুগ্ম সম্পাদক আহসানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, নগর মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কানিজ ফাতেমা মিতু, নগর ছাত্রলীগ সভাপতি নূর মোহাম্মদ সিয়াম।

সভায় এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ১৯৬৪ সালের আজকের এই দিনে জন্ম নিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুর অতি আদরের কনিষ্ঠ পুত্রকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধু পরিবারের কেউ যাতে কোনদিন আর দেশ পরিচালনার দায়িত্বে আসতে না পারে সেই উদ্দেশ্যে শিশু রাসেলকেও হত্যা করে ঘাতকেরা।

তিনি আরও বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি আজ মাথা তুলে উঠতে চায়ছে। এই বাংলাদেশে তা কখনও সম্ভব নয়। উগ্র মৌলবাদীদের বিষদাঁত এখনই উপড়ে ফেলতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাদের কখনও সফল হতে দেবে না। উন্নত বাংলাদেশ গড়তে অদ্যবধি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, রেজাউল ইসলাম বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, প্রচার সম্পাদক দিলীপ কুমার ঘোষ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক জিয়া হাসান আজাদ হিমেল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, ধর্ম সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রবিউল আলম রবি, মহিলা সম্পাদিকা ইয়াসমিন রেজা ফেন্সি, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মকিদুজ্জামান জুরাত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক কামারউল্লাহ সরকার কামাল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডা. ফ ম আ জাহিদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম, সদস্য মুশফিকুর রহমান হাসনাত প্রমুখসহ থানা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীরা। আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে নগরীর তালাইমারি শহিদ মিনারে ওয়াই এম ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, বদরুজ্জামান খায়ের, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আহ্সানুল হক পিন্টু, ধর্ম সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ প্রমুখ।

শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ : শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ, রাজশাহী মহানগরের উদ্যোগে সোমবার বেলা ১২টায় কুমারপাড়াস্থ মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কেক কাটা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, সদস্য আশীষ তরু দে সরকার অর্পণ, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ, রাজশাহী মহানগরের সভাপতি পল্লব কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক তানভীর ইসলাম লিওন, সহ- সভাপতি চন্দন কুমার সরকার সদস্য সাজ্জাদ, রনি, হিল্লোল, শাওন, মিজান, রুদ্রজিৎ, ইমন প্রমুখ।

রাবি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি)’র শেখ রাসেল মডেল স্কুলে শেখ রাসেলের ছবিতে পুষ্পমাল্য প্রদান, বৃক্ষরোপণ, পুরস্কার বিতরণ ও কেক কাটার মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯ টায় রাবি ভিসি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর তিনি শেখ রাসেল মডেল স্কুল আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রো-ভিসি অধ্যাপক চৌধুরী জাকারিয়া, অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম ও স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন মিশ্র।

স্কুলের অধ্যক্ষ লিসাইয়া মেহ্জবিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক এম হুমায়ুন কবীর, ছাত্র-উপদেষ্টা এম তারেক নূর, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর লিয়াকত আলী, জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক ড. আজিজুর রহমান, পরিবহন প্রশাসক মোকছিদুল হকসহ সহকারী প্রক্টর, স্কুল পরিচালনা পরিষদের সদস্য, স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বক্তব্যে বলেন, শেখ রাসেল আমাদের মাঝে অনন্য এক নাম। বাংলাদেশের শিশু, কিশোর, তরুণ, বৃদ্ধ সকলের নিকট এক ভালোবাসার নাম শেখ রাসেল।

এছাড়াও তিনি আগামী বছর থেকে এ দিবস উপলক্ষে ‘শেখ রাসেল পদক’ চালু করার ঘোষণা দেন। পাশাপাশি শেখ রাসেলের স্মৃতি ধরে রাখতে এ দিবসটিতে বাই সাইকেল চালানো প্রতিযোগিতা আয়োজনের কথাও জানান।

দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান করেন ভিসি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার। তিনি শেখ রাসেল মডেল স্কুল ও রাবি স্কুল প্রাঙ্গণে গাছের চারাও রোপণ করেন। স্কুলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে শেখ রাসেলের জন্মদিনের কেক কাটা ও সমবেত জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন স্কুলের শিক্ষক রুম্মান বেগম, মেহের নিগার সমাপ্তি ও দেবশ্রী মন্ডল।

রুয়েট: দিবসটি উপলক্ষে বাদ জোহর রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহিদ শেখ রাসেলসহ ৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম সেখ, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. সেলিম হোসেন, পরিচালক ছাত্রকল্যাণ প্রফেসর ড. রবিউল আওয়াল, উপ-পরিচালক ছাত্রকল্যাণ মামুনুর রশীদ ও আবু সাঈদ প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন, রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম নাজমুল আলম।

বিএমডিএ: দিবসটি উপলক্ষে বিএমডিএতে শেখ রাসেল এর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য বেগম আখতার জাহান। শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে কেক কাটেন তিনি। এরপর এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য বেগম আখতার জাহান। এদিন ভার্চুয়ালি পদ্ধতিতে বিএমডিএ‘র চেয়ারম্যান বেগম আখতার জাহান রাজশাহী বিভাগের পবা, নাটোর ও সাপাহার উপজেলা এবং রংপুর বিভাগের পীরগঞ্জ, বদরগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম উপজেলায় ১০ হাজার তাল গাছের চারা রোপণ উদ্বোধন করেন। পরে বাদ যোহর শেখ রাসেলের জন্য বিএমডিএ জামে মসজিদে দোয়া করা হয়। সর্বশেষ শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে প্রধান কার্যালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী সন্তানদের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য, কবিতা আবৃতি, গান ইত্যাদি বিষয়ে অনুষ্ঠান হয়।

ওয়াসা: রাজশাহী ওয়াসা’র উদ্যোগে সকাল ৭ টায় প্রধান কার্যালয়ে দিবসটি উপলক্ষে শেখ রাসেল এর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন. ওয়াসা’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকীর হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ওয়াসা’র উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) এস.এম তুহিনুর আলম, প্রধান প্রকৌশলী পারভেজ মামুদ, সচিব মুহাম্মদ আবদুল হালিম টলষ্টয়, নির্বাহী প্রকৌশলী সোহেল রানা, রেজাউল হুদা, মাহবুবুর রহমানসহ ওয়াসা’র উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা। দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন, ওয়াসা’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকীর হোসেন।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড: জন্মদিন উপলক্ষে সকাল ১১ টায় রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল চত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ম্যুরালে এবং শেখ রাসেল এর প্রতিকৃতিতে পুষ্প অর্পণ করা হয়। এক মিনিট নীরবতা পালন এবং মোনাজাতের মাধ্যমে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোকবুল হোসেন, সচিব ড. মোয়াজ্জেম হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আরিফুল ইসলাম, কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর হাবিবুর রহমান, উপ-পরিচালক (হিসাব ও নিরীক্ষা) বাদশা হোসেন। আরও উপস্থিত ছিলেন, কর্মকর্তা কল্যাণ সমিতির সভাপতি মুঞ্জুর রহমান খান ও সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ হোসেন এবং কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি হুমায়ুন কবীর লালু ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলীসহ রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সকল স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

রাকাব : জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) প্রধান কার্যালয় চত্বরে শিশু-কিশোরদের উপস্থিতিতে ব্যাংকের পক্ষ থেকে কেক কাটা হয়। কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন, ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইসমাইল হোসেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) জয়নাল আবেদীন, মহাব্যবস্থাপক (নিরীক্ষা, হিসাব ও আদায়) মাকসুদা নাসরীন, রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় মহাব্যবস্থাপক কামিল বুরহান ফিরদৌস এবং প্রধান কার্যালয়ের সকল বিভাগের বিভাগীয় প্রধানসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন নির্বাহীরা। এছাড়াও শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন উপলক্ষে প্রধান কার্যালয়ের মসজিদে পবিত্র কোরআন খতম ও দোয়া মাহফিল, আয়াতুল্লাহ দারুল উলুম মাদ্রাসা ও এতিমখানায় বসবাসরত এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ এবং ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মকর্তা- কর্মচারীর অংশগ্রহণে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি: দিবসটি উদযাপনের লক্ষ্যে রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রির বোর্ড রুমে কোরআন খতম ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি মনিরুজ্জামান, সিনিয়র সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকুসহ চেম্বার সচিবালয়ের সকল কর্মকর্তা- কর্মচারীরা। এসময় তারা গভীর শ্রদ্ধা ও তার আত্মার মাগফিরাত করেন।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রাজশাহী জেলা ইউনিট কমান্ড: দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রাজশাহী জেলা ও মহানগর কমান্ড যৌথ ভাবে ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করে। রাজশাহী জেলা সাবেক ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার শাহাদুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ রাজনীতিবিদ যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সামাদ, জেলা সাবেক ডেপুটি কমান্ডার কেএমএম ইয়াছিন আলী মোল্লা, মহানগর সাবেক ডেপুটি কমান্ডার রবিউল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধ’৭১ কানপাড়া জয়েন্ট সেক্রেটারী বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ (বাগমারা) ও রাকাব কমান্ডের বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবু উপেন্দ্রচন্দ্র দাস এবং ভার্চুয়ালি মোবাইল ফোনে যুক্ত থেকে বক্তব্য দেন, রাজশাহী অঞ্চলের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুল মান্নান প্রমুখ। সভা শেষে ৭৫ এর ১৫ আগস্ট শাহাদাৎ বরণকারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহিদের রুহের মাগফেরাত, দেশ ও জাতির কল্যাণ ও বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

পবা: দিবসটি উপলক্ষে পবা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পতœীতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলী, ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াজেদ আলী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আরজিয়া বেগম। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আয়োজিত রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

মোহনপুর: মোহনপুরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিলসহ নানা আয়োজনে জন্মদিন পালিত হয়েছে। সোমবার সকালে মোহনপুর উপজেলা প্রশাসন ও দুপুরে কেশরহাট পৌর প্রশাসনের উদ্যোগে শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণে আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, মোহনপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানওয়ার হোসেন, মোহনপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম, কেশরহাট পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান, কেশরহাট উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

বাঘা: দিবসটি উপলক্ষে প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কুইজ ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরুস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে আয়োজিত সভায় সভাতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মৎস্য অফিসার আমিরুল ইসলাম, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মীর মামুনুর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কাশেম ওবাইদ, বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান প্রমুখ।

দুর্গাপুর: দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল রানা নিজের কন্ঠে গান গেয়ে শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস পালন করেন। এদিন সকাল ৯ টায় দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল রানা। সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে দুর্গাপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগীতায় জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস ২০২১ উপলক্ষে সেমিনার, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) শুভ দেবনাথ, উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান বানেছা বেগম প্রমুখ।

নাটোর: দিবসটি উপলক্ষে সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে রাসেল মঞ্চে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন, সাংসদ শফিকুল ইসলাম শিমুল, জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা। নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহরের কান্দিভিটা দলীয় কার্যালয়ে শেখ রাসেলের জন্ম দিন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাজেদুর রহমান চাঁনের সভাপত্বিতে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, স্থানীয় সাংসদ শফিকুল ইসলাম শিমুল। বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক দিলিপ কুমার দাস প্রমুখ।

রুয়েট বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদ: দিবসটি উপলক্ষে শহিদ শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। শ্রদ্ধাঞ্জলি শেষে ৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহিদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এসময় কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক দিলীপ কুমার ঘোষ, বোয়ালিয়া থানা পশ্চিম আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, রুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ, সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী রাইসুল ইসলাম রোজ প্রমুখ।

শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ: দিবসটি উপলক্ষ্যে শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের রাজশাহী মহানগরের উদ্যোগে খাবার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল করা হয়েছে। দুপুর দেড় টায় নগরীর বর্ণালীর মোড়ে অবস্থিত ছোট মনি নিবাসের এতিম শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের রাজশাহী মহানগরের সভাপতি পল্লব কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক তানভির লিয়ন, সহ-সভাপতি চন্দন কুমার সরকার প্রমুখ।

রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ: দিবসটি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ সভাপতি সাইদুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) চেয়ারম্যান আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসলাম-উদ-দৌলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযুদ্ধের তথ্য সংগ্রাহক ওয়ালিউর রহমান বাবু, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের সহ- সভাপতি সালাউদ্দীন মিন্টু, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক আমানুল্লাহ আমান, জেলার বাগমারার প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা আবুল হোসেন প্রমুখ।

রাজশাহী কলেজ : দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী কলেজের কর্মসূচির মধ্যে ছিল স্মরণ সভা, রচনা প্রতিযোগিতা, চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃত্তি, দেয়ালিকা প্রকাশ এবং বিশেষ দোয়া মাহফিল। সকাল সাড়ে ১০ টায় কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকমন্ডলী, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা এসকল কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। সকাল ১১ টায় ‘শেখ রাসেল দিবস’ উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয় স্মরণ সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান। স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন, কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল খালেক । উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, রাজশাহী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মুখ্য আলোচক ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক আল আমীন হক, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহ্বায়ক ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. ইব্রাহিম আলী, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। অনুষ্ঠানের শেষে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। ১৫ আগস্ট নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজ: দিবসটি উপলক্ষে সকাল ১০:৩০ টায় কলেজ প্রাঙ্গণে আনন্দ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিতে কলেজের সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারি ও ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন। সকাল ১০:৩০ মিনিটে শেখ রাসেল স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন, কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্বপ্রাপ্ত ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর তৌহিদুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহ্বায়ক মোজাফফার হোসাইন এবং বিভিন্ন বিভাগের সম্মানিত বিভাগীয় প্রধানসহ শিক্ষকবৃন্দ, কর্মচারী এবং ছাত্রীরা।

শাপলা: বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা শাপলা গ্রাম উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে সকাল ১০ টায় রাজশাহীর তানোর উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নের মাদারীপুরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পারিশো দূর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম কমল সাহা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সমাজসেবক মোকলেসুর রহমান। সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক মোহসিন আলী। অনুষ্ঠানে আলোচনা, দোয়া মাহফিল, শিশু ও কিশোরদের নিয়ে রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও দুস্থ দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম: দিবসটি উপলক্ষে বিকাল ৪ টায় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম এর রাজশাহী জেলা কার্যালয়ে একটি আলোচনা ও প্রার্থনা সভার আয়োজন করা হয়। প্রকল্পের সহকারী পরিচালক দেবব্রত বর্মনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ট্রাস্টি শ্রী তপন কুমার সেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, সদস্য আশীষ তরু দে সরকার অর্পন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, প্রকল্পের এমটি বাবু কানু বাঁশফোর।

লফস: দিবসটি উপলক্ষে মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) এর আয়োজনে এবং বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন রাজশাহী জেলার পক্ষ থেকে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের অংশ গ্রহনে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কেক কাটা হয়। আনন্দ উৎসব করা হয়। অনুষ্ঠানে লফস এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার সালাউদ্দিন এ সভাপতিত্বে লক্ষ্মীপুরস্থ দুঃস্থ মহিলা শিল্প সংস্থার সভানেত্রী মিসেস সুফিয়া ইসলাম, নিকুঞ্জ বস্তি উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক (অর্থ) তৌফিকুল ইসলাম, সংস্থার প্রোগ্রম অফিসার চম্পা খাতুন, প্রোগ্রাম এসিসটেন্ট সুলতানা রিজিয়া উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের প্রথম অংশে এ নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ (খাতা-কলম) বিতরণ করেন।

ক্ষুদ্র নৃৃগোষ্ঠির কালচারাল একাডেমি : দিবস উপলক্ষে সোমবার আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং পুরস্কার বিতরণ করা হয়। আলোচনা সভার পূর্বে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাজানান একাডেমির নির্বাহী পরিষদের সদস্য ও কর্মকর্তা-শিক্ষার্থী এবং কর্মচারীগণ।

রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির কালচারাল একাডেমির আয়োজনে সভায় সভাপতিত্ব করেন একাডেমির গবেষণা কর্মকর্তা বেনজামিন টুডু। উপস্থিত ছিলেন একাডেমির নির্বাহী পরিষদের সদস্য চিত্তরঞ্জন সরদার ও সুসেন কুমার শ্যামদুয়ার, সংগীত প্রশিক্ষক কবীর আহম্মেদ বিন্দু ও নাটক প্রশিক্ষক লুবনা রশিদ সিদ্দিকাসহ শিক্ষার্থী ও অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। সভা সঞ্চালনা করেন সংগীত প্রশিক্ষক মানুয়েল সরেন।

উপস্থিত অতিথি ও সভাপতি শেখ রাসেলের জীবন সম্পর্কে আলোকপাত করেন। সেইসাথে তাঁর পরিবার ও তাঁকে খুনিরা যে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তার লোমহর্ষক কাহিনী তুলে ধরেন। বক্তব্য শেষে দেশাত্বকবোধক গান ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার হিসেবে শেখ রাসেলের জীবন সম্পর্কে বই তুলে দেন তারা। শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

পিনকাল স্টাডি হোম: দিবসটি উপলক্ষে পিনাকল স্টাডি হোম এর শিশু শিক্ষার্থীদের আয়োজনে দিনব্যাপি ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার হোসেন উপস্থিত থেকে শেখ রাসেল এর দিবস এর তাৎপর্য তুলে ধরেন। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিদ্যালয় কমিটির সদস্য, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।