শেষ মুহূর্তে আমন চাষাবাদে ব্যস্ত গোমস্তাপুরের কৃষকরা

আপডেট: আগস্ট ২৯, ২০২৩, ২:৫৪ অপরাহ্ণ

গোমস্তাপুরে শেষ মুহূর্তে আমন চাষাবাদ করছেন কৃষক। উপজেলার পার্বতীপুর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর মাঠ থেকে মঙ্গলবার ছবিটি তোলা

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:


চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে শেষ মুহূর্তে আমন চাষাবাদে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে কৃষকরা। দ্রুতগতিতে তাঁরা জমি তৈরি করে চারা রোপণ করছেন। কয়েক মাস আগে থেকে আমন চাষাবাদ শুরু হয়েছে। এখন আউস ধান কেটে আমন ধানের চারা রোপনে কৃষকরা জমি তৈরি করছেন। তাঁরা স্থানীয় জাত (চিনি আতব) রোপণ করতে দেখা গেছে । তবে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের জানিয়েছেন তাঁদের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়ে যাবে।

গোমস্তাপুর উপজেলার কৃষি বিভাগ জানিয়েছেন, এবার গোমস্তাপুর উপজেলায় ১৬ হাজার ৭৫ হেক্টর জমিতে আমন চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এর মধ্য ব্রিধান ৫১- চার ৮৫০ হেক্টর, স্বর্না- দুই হাজার ৮৫০ হেক্টর, ব্রিধান ৭৫- এক হাজার ৮০০ হেক্টর, ব্রিধান ৪৯-৭৭০ হেক্টর, ব্রিধান ৮৭- ৭০০ হেক্টর, ব্রিধান ৭- ৪৫০ হেক্টর, বিনাধান৭- ৪৫০ হেক্টর, বিনাধান১৭-৩৪৫ হেক্টর, বিনাধান২২- ১৭০ হেক্টর, ব্রিধান৩৪- ৩২০ হেক্টর, ব্রিধান৭২-২২০ হেক্টর, ব্রিধান৯০- ৮০ হেক্টর, ধানীগোল্ড ২৩০ হেক্টর, এ্যারাইজ৭০০৬- হেক্টর সহ স্থানীয় চিনি আতব তিন হাজার ৭০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করা হচ্ছে।

রোকনপুর গ্রামের কৃষক নুরুল ইসলাম বলেন, মৌসুমের শুরুর দিকে তিনি ৭ বিঘা জমি চাষাবাদ করেছেন। এখন ধানের গোড়া শক্ত হয়ে শিকড় গজাচ্ছে। কিছুদিন আগে পানির সমস্যা দেখা দিয়েছিল।

পার্বতীপুর ইউনিয়নের কৃষক এজাবুল বলেন, বৃষ্টি কম হওয়ার আবাদ করতে বেগ পেতে হয়েছে। তবে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) গভীর নলকূপের পানির ব্যবস্থা করে চাষাবাদ করা হয়েছে। এছাড়া শ্রমিকের মূল্য বেশি দিতে হয়েছে। তবে এ বছর আবহাওয়া ভাল থাকলে ধানের উৎপাদন ভাল পাবেন বলে তিনি জানান।

গোপনাথপুর মাঠের কৃষক মোজাহার বলেন, তাঁর জমিতে বছরে তিনটি ফসল করেন। আউশ ধান (পারিজা) কেটেছেন। এখন তিনি চিকন (আতব) ধান রোপণ করছেন। ভাল ফসল পাবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

রাধানগর ইউনিয়নে দায়িত্ব থাকা উপসহকারী কৃষি কৃষি কর্মকর্তা শেখ আল ফুয়াদ বলেন, শেষ মুহূর্তে আমন চাষাবাদ করছেন কৃষকরা। আউস ধান কেটে এখন চিনি আতব ধান রোপণ করছেন। এবার আউস ধানে ভাল উৎপাদন হয়েছে। কৃষকরা বেশ খুশি। আমন ধানেও ভাল উৎপাদন হবে বলে তিনি আশাবাদি।

গোমস্তাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ সরকার বলেন, চলতি মৌসুমে উপজেলায় ১৬ হাজার ৭৫ হেক্টর জমিতে আমন চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। উৎপাদন ধরা হয়েছে ঊনচল্লিশ হাজার ৪২৪ মেট্রিকটন। হেক্টর প্রতি গড় উৎপাদন তিন দশমিক সাতাশ মেট্রিকটন। এ মাসের মধ্যে কৃষকের চাষবাদকৃত জমিগুলো চারা রোপণে কাজ শেষ করবে।

তিনি আরোও জানান, এবার প্রথমবারের মত এ উপজেলায় আমন মৌসুমে কৃষি প্রণোনদার মাধ্যমে সমলয় পদ্ধতি ধান বপণ ও রোপণ করা হয়েছে। কৃষকদের বিনামূল্যে সার,বীজসহ অন্যন্য উপকরণ বিতরন করা হয়েছে। চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূল থাকলে কৃষকরা ভাল ফসল উৎপাদন করতে পারবে বলে তিনি জানান।