শেষ সময়ে ব্যস্ত ফুল ব্যবসায়ীরা

আপডেট: ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :


আগামীকাল মহান স্বাধীনতা দিবস। এ দিবসটি উপলক্ষে নগরীর ফুলের দোকানগুলোতে লেগেছে ব্যস্ততার ছোঁয়া। তাই ফুলের দোকানগুলোতে মুহূর্তের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত কারিগররা। হাতে সময় না থাকায় এর মধ্যে  দোকানগুলোতে নিজের পছন্দ মত ফুলের ডালার অর্ডার দেয়া প্রায় শেষ। আর যারা অর্ডার দিতে পারেনি তাদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন দামের রেডিমেন্ট ফুলের ডালা।
এবার রাজশাহীতে বেশির ভাগ ফুল যশোরের গতখালিতে থেকে কেনা হচ্ছে। সারা দেশে ফুলের চাহিদা হওয়ায় দাম কিছুটা বেশি। তাছাড়া পরিবহন খরচ ফুলের বান্ডিল প্রতি অন্য সময়ের থেকে বেড়েছে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা। তার পরেও তেমন প্রভাব পড়বে না এমনটিই বলছেন ফুল ব্যবসায়ীরা।
এদিকে, যশোর গতখালি থেকে রাতেই বাসে করে ফুল নিয়ে আসা হচ্ছে। অর্ডার অনুয়ায়ী গতকাল বুধবার রাতের মধ্যেই ফুল চলে এসেছে দোকানে। রাত থেকে পুরো দমে ডালা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। আর যেগুলো বাকি থাকবে সেগুলো ভোরের মধ্যে সম্পন্ন করা হবে।
নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টের গিফ্ট ফুল কর্নারের প্রোপাইটর শ্রী সন্তোস কুমার বলেন, ফুলপ্রতি চার থেকে পাঁচ টাকা বেড়ে হয়েছে ১০০ গাঁদাফুল ৫০ টাকা, রজনীগন্ধা প্রতিটি ৭ থেকে ১০টাকা, গোলাপ ফুল ৫ থেকে ১০ টাকা, গ্যালোডিয়াস ১৫ থেকে ২০ টাকা। আর প্রতি ২০ ইঞ্চি ফুলের ডালা ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা, ৩০ ইঞ্চি ফুলের ডালা ১২’শ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা, ৩৮ ইঞ্চি ২৫’শ থেকে ৩ হাজার টাকা, ভিআইপি ৫ হাজার ৮ হাজার টাকা।
শ্রী সন্তোস কুমার আরো বলেন, ফুলের দামটা ও পরিবহন খরচ একটু বেড়েছে। এটাকে ফুলের ডালায় তেমন প্রভাব পড়বে না। আমাদের দোকানের সব অর্ডার নেয়া হয়ে গেছে। আর যাদের অর্ডারগুলো আসেনি তারা হয়তো বা রেডিম্টে নিবে। তার পলেও সব কিছু ভালো থাকলে এ ডিসেম্বররে ৮০ থেকে ৯০ হাজার টাকার ফুল বিক্রি হবে।