শ্বশুরবাড়ি এসে লাশ হলেন জামাই

আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০১৭, ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

মোহনপুর প্রতিনিধি


রাজশাহীর মোহনপুরে নোনাভিটা গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে ধারের টাকা নিতে এসে লাশ হয়ে ফিরলেন বাগমারার আক্তার হোসেন (৩২)। এ ব্যাপারে নিহতের ছোট ভাই আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে মোহনপুর থানায় ইউডি মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল রোববার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।
নিহতের ছোট ভাই আশরাফুল ইসলাম জানান, ৯ বছর পূর্বে মোহনপুর উপজেলা নোনাভিটা গ্রামের আমজাদ আলী মেয়ে নাজমা বেগমের সঙ্গে বাগমারা উপজেলার পানিশাইল গ্রামের আলিমুদ্দিনের ছেলে আক্তার হোসেনের বিয়ে হয়। জামাই আক্তার হোসেনের কাছ থেকে শ্বশুর পক্ষের লোকজন প্রায় তিন লাখ টাকা ধার নেয়। ধারের টাকা চাইলে জামাই ও শ্বশুর পরিবারের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি শুরু হয়। নিহত আক্তার গত সোমবার বিকেলে শ্বশুর বাড়ি আসে টাকা নেয়ার জন্য। ওইদিন টাকা নিয়েই শ্বশুর পরিবারের লোকজন আমার ভাইকে জোর করে বিষপান করিয়ে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করায়। তিনদিন চিকিৎসার পর অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী বেসরকারি হাসপাতালে হস্তান্তর করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার আক্তার হোসেন মারা যায়।
এ বিষয়ে মোহনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ