শ্রদ্ধার মধ্যদিয়ে শহিদ ডা. মিলনকে স্মরণ

আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০২২, ১১:০৪ অপরাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :


চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহিদ ডা. শামসুল আলম মিলনের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে রোববার (২৭ নভেম্বর) সকাল ১০টায় জেলা শহরের নিমতলাস্থ জাসদের কার্যালয়ে ডা. মিলনের অস্থায়ী বেদিতে পুষ্পমাল্য অর্পনের মধ্যদিয়ে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে জেলা জাসদসহ সহযোগী সংগঠন। পরে শহিদের আত্মার শান্তি কামনায় ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে জেলা জাসদের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা জাসদের সহ-সভাপতি আব্দুল হামিদ রুনুর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনটির জেলা সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবু হেনা বাবলু, জেলা যুবজোটের সভাপতি তরিকুল ইসলাম, কর্ণেল তাহের সংসদের জেলা সভাপতি নিয়ামুল হক, ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন টিএসসি এলাকায় তৎকালীন স্বৈরশাসকের গুপ্ত বাহিনীর গুলিতে নির্মমভাবে প্রাণ হারান শহিদ ডা. শামসুল আলম খান মিলন। তার রক্তদানের মধ্য দিয়েই স্বৈরাচারবিরোধী গণআন্দোলন আরও বেগবান হয় এবং এক ঐতিহাসিক ছাত্র গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে স্বৈরশাসকের পতন ঘটে। এ ঘটনার পর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন গণ-বিস্ফোরণের রূপ ধারণ করে স্বৈরাচার এরশাদের পতন ঘটে।