শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদারকে স্মরণ

আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০২৩, ৯:৫৪ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় রাজশাহী এসোসিয়েশন নির্বাহী পরিষদের সদস্য ও প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদারকে স্মরণ করা হয়েছে। শনিবার (২ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪ টায় রাজশাহী এসোসিয়েশনের সেমিনার কক্ষে এসোসিয়েশনের উদ্যোগে এই স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।
এর আগে, রাজশাহী এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদারের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করা হয়।

স্মরণসভায় রাজশাহী এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন প্রামাণিকের সভাপতিত্বে মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন- রাজশাহী এসোসিয়েশনের নির্বাহী সদস্য ও সোনার দেশ পত্রিকার সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত।

এসময় রাজশাহী এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) অ্যাডভোকেট আসলাম সরকারের সঞ্চালনায় আলোচক ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক শামসুল আলম বীর প্রতীক, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অনিলকুমার সরকার, রাজশাহী মহানগরের (সাবেক) কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আব্দুল মান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের বিভাগীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খসব;ত্ন আবুল হাসান, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ড. জোবাইদা আয়েশা সিদ্দিকা, শাহ মখদুম কলেজের অধ্যক্ষ এস.এম রেজাউল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুখেন মুখার্জী, উস্তাদ শ্রী মঞ্জুশ্রী রায়, প্রয়াত প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিনাতুননেসা তালুকদারের পুত্র মাহমুদ হাসান ফয়সল। স্মরণসভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. মতিউর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার আবুল হাসান।

উল্লেখ্য, রাজশাহীর প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদার ১৯৪৭ সালের ৯ জুলাই জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৯৮ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত সরকারের মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ছিলেন তিনি। এছাড়া ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত সংরক্ষিত মহিলা ৬ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। এরপর ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সংরক্ষিত মহিলা ১১ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে নারীূ উন্নয়নে অবদানের স্বীকৃত স্বরূপ ২০১৮ সালে তিনি বেগম রোকেয়া পদক লাভ করেন। তিনি ২০২৩ সালের ২৯ অক্টোবর ভোর ৬টায় ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version